আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

রাবির কবরস্থান এখন মাদকের আস্তানা, চলে জুয়ার আসর!

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৩৫জন দেখেছেন

Image

রাবি প্রতিনিধি:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) কবরস্থান, যেখানে শায়িত আছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক গুণী শিক্ষক। সেখানেই বসে নিয়মিত মাদকের আড্ডা। এমনকি জুয়ার আসরও।

নির্জনতাকে পুঁজি করে স্থানীয় মাদকসেবীরা পবিত্র এই স্থানটিকে মাদকের আখড়ায় পরিণত করলেও সেটি বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ নেই প্রশাসনের।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কবরস্থানের উত্তর-পশ্চিম পার্শ্বের দেয়াল ঘেঁষে যথারীতি আস্তানা গেড়ে বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য সেবন করছেন তারা। বড় আকারে গর্ত করে মাদকদ্রব্যের উচ্ছিষ্ট রাখার ব্যবস্থাও করা হয়েছে সেখানে। ফেনসিডিল, গাঁজা, মদ ও ইয়াবা সেবনের নানা উপকরণে ভর্তি সেই গর্ত।

প্রতিদিন সন্ধ্যা গড়ালেই শুরু হয় তাদের এসব কর্মকান্ড এবং চলতে থাকে মধ্যরাত পর্যন্ত। শুধু মাদক নয় সেখানে প্রায় সময় অনৈতিক কার্যক্রমের ঘটনাও ঘটতে দেখেছেন স্থানীয় লোকজন।

কবরস্থানে দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তা রক্ষীরা বলেন, জায়গাটি খুবই ভয়ংকর যেজন্য তারাও সেখানে যান না ছিনতাইয়ের ভয়ে। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কবর জিয়ারতে আসলে তারা বিষয়টি অবহিত করেন। পরে প্রশাসন পুলিশের সাথে এ বিষয়ে কথা বলবেন বলে জানান।

তারা আরো বলেন, কবরস্থান মসজিদে প্রায়শই চুরির ঘটনাও ঘটছে। দু-একদিনের মধ্যে জুতা চুরি হয়েছে এবং মাঝে মাঝে সাইকেলও চুরি হয় বলে তারা মন্তব্য করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, বহিরাগত লোকজন গ্রæপ আকারে প্রতিদিন রাত ৭-৮ টার দিকে এখানে এসে মাদকের আড্ডা বসায়। প্রায় সারারাত চলতে থাকে এমনসব  আড্ডা। লক্ষ লক্ষ টাকার জুয়া খেলাও চলে এই পবিত্রস্থানে। এমনকি মাঝে মাঝে নারী নিয়েও তাদেরকে আসতে দেখেন তিনি। এই নির্জন জায়গায় প্রতিনিয়তই ছিনতাইয়ের ঘটনাও ঘটছে বলে অভিযোগ তার।

বিশ্ববিদ্যালয় কবরস্থানে এমন মাদকের আড্ডার ব্যাপারটি দুঃখজনক’ জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবী বিভাগের অধ্যাপক ড. ইফতেখারুল আলম মাসউদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কবরস্থান যাকে রক্ষা করা বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্ব। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন  ইচ্ছে করলে দুদিনের মধ্যেই মাদকমুক্ত করতে পারে। এতে একটি সংঘবদ্ধ চক্র সক্রিয় রয়েছে যাদের সাথে প্রশাসনের হাত আছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, প্রশাসনের দায়িত্বের অবহেলার কারণেই এসব মাদকসেবীরা সেখানে মাদকের আস্তানা গেড়ে বসেছেন। তারা কবর বাসীর নিরাপত্তাটুকুও দিতে পারছেনা বলে তার অভিযোগ। এটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের চরম ব্যর্থতা বলে অভিহিত করেন তিনি। বিশ্ববিদ্যালয় কবরস্থান আমাদের সম্পদ এবং তাকে রক্ষা করাও আমাদের দায়িত্ব। তাই প্রশাসনে উচিত সেই জায়গাগুলোকে মাদকমুক্ত করা।

কবরস্থান নিকটবর্তী চন্দ্রিমা থানার পুলিশ পরিদর্শক এমরান হোসেন বলেন, আমাদের কাছে মাদকসেবন ও জুয়ার আসর সম্পর্কে এখনো পর্যন্ত কোনো তথ্য আসেনি সেজন্য আমরা এ বিষয় সম্পর্কে অবগত ছিলাম না। তবে বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি বলে তিনি জানান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর লিয়াকত আলী বলেন, কবরস্থানের এমন অপকর্ম সম্পর্কে আমরা জানতাম না  জানতাম না তবে আজকে ঘটনাটি শুনেছি এবং অতিদ্রæত পদক্ষেপ নিচ্ছেন বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য মো.সুলতান-উল-ইসলাম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে পরপর ছিনতায়ের ঘটনা ঘটায় আমরা সকল স্থান নিয়ে সচেতন আছি এবং সর্বাত্বকভাবে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা গতকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে এলার্ট জারি করেছি এবং পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলোতে পর্যাপ্ত লাইট, সিসি ক্যামারা এবং পুলিশ মোতায়েনসহ গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিচ্ছে বলে তিনি জানান।


আরও খবর



দিনাজপুরে আবাসিক হোটেল থেকে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দিনাজপুরের বিরামপুরে রজনীগন্ধা নামের একটি আবাসিক হোটেল থেকে মাইদুল ইসলাম তানিম নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মৃত মাইদুল ইসলাম তানিম (২৭), পাবনা জেলার সাথিয়া উপজেলার কাশিনাথপুর ইউনিয়নের পাইকর গ্রামের মৃত কুদ্দুস আলীর ছেলে।

মঙ্গলবার সাড়ে ১১টার সময় বিরামপুর পৌরশহরের রজনীগন্ধা আবাসিক হোটেলের ১০নং কক্ষ থেকে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিরামপুর থানার ওসি সুমন কুমার মহন্ত বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মাইদুল ইসলাম তানিম একটি বেসরকারী  কোম্পানিতে চাকুরি করেন এমন তথ্য দিয়ে গত ৮ জানুয়ারি রজনীগন্ধা আবাসিক হোটেলের ১০নং কক্ষটি ভাড়া নেন। মঙ্গলবার সকালে ভাড়া নিতে রুমের পাশে দরজায় গিয়ে ডাকাডাকি করেও তার কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে হোটেলে ম্যানেজার বিরামপুর থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশের একটি টিম সেখানে গিয়ে ওই কক্ষের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পায়। পরে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।


আরও খবর



মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে আটক ৪৭

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ৪৭ জনকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। 

সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) হাফিজ আল আসাদ জানান, এ সময় তাদের কাছ থেকে ছয় হাজার ৪৮৩ পিস ইয়াবা, ২১৯ গ্রাম হেরোইন, এক কেজি গাঁজা ও এক বোতল দেশি মদ জব্দ করা হয়।

আটকদের নামে ডিএমপির বিভিন্ন থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ২৯টি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।  


আরও খবর



শাবি’র ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে ৮ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আজ সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আনোয়ারুল ইসলাম তদন্ত কমিটি গঠনের তথ্য জানান।

তিনি জানান, গতকাল রবিবার রাতে জরুরি সিন্ডিকেট সভায় এই কমিটি গঠন করা হয়। এতে ফিজিক্যাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো রাশেদ তালুকদারকে সভাপতি ও রেজিস্ট্রার মো. ইশফাকুল হোসেনকে সদস্য সচিব করে এই কমিটি গঠন করা হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল অনুষদের ডিন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতিকে কমিটির সদস্য করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, রবিবার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশের হামলা চালানোর প্রতিবাদে এবং ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।

সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বর এলাকায় জড়ো হয়ে ক্যাম্পাসে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা। পরবর্তীতে ভিসির পদত্যাগের দাবিতে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে শিক্ষার্থীরা। এখনো আন্দোলন চলছে।


আরও খবর
গণ-অনশনে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




আলিয়ার পরপরই বিয়ের পিড়িতে বসবেন সারা

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আতরঙ্গি রে সিনেমা দিয়ে নিজেকে নতুন করে আবিষ্কার করেছেন বলিউড সেনসেশন সারা আলি খান। দুই সিনেমা ফ্লপ হওয়ার পর সমালোচিত হচ্ছিলেন সাইফকন্যা। আনন্দ এল রাই পরিচালিত সারার নতুন ছবিটি বক্স অফিসে তোলপাড় সৃষ্টি করেছে।

গেল মাসে মুক্তি পাওয়া এই ছবিতে অভিনয় করেছেন ধানুশ এবং অক্ষয় কুমার। ধানুশের সঙ্গে আলিয়ার রসায়ন দর্শকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে। ছবি প্রসঙ্গ, সম্পর্ক, প্রেম ও বিয়ে নিয়ে সারা আলি খান সম্প্রতি খোলামেলা কথা বলেছেন ।

বলিউডে উদীয়মান অভিনেতা অভিনেত্রীদের মধ্যে এখন সবচেয়ে বেশি আলোচিত সারা আলি খান ও আলিয়া ভাট। এ দুজনকে নিয়ে বি টাউনে সবচেয়ে বেশি আলোচনা। তাদের অভিনয়ের পাশাপাশি ব্যক্তিজীবন নিয়েও আলোচনা তুঙ্গে। কবে বিয়ে করছেন তারা এ নিয়ে গুঞ্জন ছড়াচ্ছে। শোনা যাচ্ছে আলিয়ার পরপরই বিয়ের পিড়িতে বসবেন সারা।

এদিকে আতরঙ্গি রে ছবির মাধ্যমে সারা নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। এখন তিনি জনপ্রিয়তায আলিয়াকে ধরার অপেক্ষায়। এক প্রশ্নের জবাবে সারা বলেছেন, তিনি এখন আলিয়া ভাটের দিকে তাকাচ্ছেন, যিনি এখনও একই বয়সের জায়গায় আছেন কিন্তু ইতোমধ্যে তার অভিনয় দিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে একটি বিশাল চিহ্ন রেখে গেছেন।

ভক্তদের প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সময়, সারা আলি খানকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে, তিনি ইন্ডাস্ট্রিতে যে অভিনেত্রীকে সামনে রাখতে চান তিনি কে?

উত্তরে, সারা বলেছিলেন আমি সত্যিই একজন অভিনেত্রীকে দেখতে চাই, আমি মনে করি সে আমাদের প্রজন্ম থেকে, এটি আলিয়া ভাট হবে।সারা আলি খান বর্তমানে ভিকি কৌশলের সঙ্গে লক্ষ্মণ উতেকারের পরবর্তী সিনেমার শুটিংয়ে ইনডোরে রয়েছেন।


আরও খবর



নড়াইল, ঝিনাইদহ এবং চাটমোহরে শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জীবনের প্রত্থম আমাগের কেউ কম্বল দিলো। এতদিন ধরে কত জনরে কইছি, কেউ আমাগের কথা শোনে না। এই গাঁয়ের মানুষরে কেউ দ্যাহে না, আল্লাহ আপনাগের বাচায়ে রাখুক- বসুন্ধরা গ্রুপের কম্বল পেয়ে অশ্রুসজল চোখে একথা বলেন কালিয়ার প্রত্যন্ত মাটিয়াডাঙ্গা গ্রামের সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা আমিরোন বেগম। কম্বলটি গায়ে জড়াতেই আনন্দে ভরে ওঠে আমিরোনের মুখ। তার মতো প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ ইসলাম শেখ কিম্বা পরাণ দাসের কণ্ঠে একই কথা শোনা যায়।

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা গাজিপুর-মাটিডাঙ্গা গ্রামের ৩ শতাধিক শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছে দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ। শুভসংঘের ব্যবস্থাপনায় গত সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) সকালে কালিয়ার মহাজন-গাজিপুর এলাকায় এসকল কম্বল বিতরণ করা হয়।

দেশের বৃহত্তম শিল্প প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের সহয়তায় শুভসংঘের আয়োজনে ঝিনাইদহে দুস্থ, দরিদ্র-অসহায় শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ঝিনাইদহ বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান স্টেডিয়ামে কম্বল বিতরণের আনুষ্ঠানিক উদ্ভেধন করেন ঝিনাইদহ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সেলিম রেজা। ঝিনাইদহ পৌর এলাকার ৫ শতাধিক শীতার্তের হাতে কম্বল তুলে দেওয়া হয়।

দেশের সুনামধন্য শীর্ষ শিল্প প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের আর্থিক সহায়তায় চাটমোহর উপজেলা শুভসংঘের আয়োজনে ৫ শ শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১২টায় চাটমোহর সরকারি ডিগ্রী কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের তত্বাবধানে এই অনুষ্ঠান পরিচালিত হয়।


আরও খবর