আজঃ শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

রামেক হাসপাতালে করোনায় ৬ জনের প্রাণহানি

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনায় ২ জন ও উপসর্গ নিয়ে ৪ জন মারা গেছেন। সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকালে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ৫ জনের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে ৩ জন করোনা পজিটিভ হয়ে এবং ২ জন উপসর্গ নিয়ে মারা যান। শামীম ইয়াজদানী জানান, সর্বশেষ মারা যাওয়া ৬ জনের মধ্যে রাজশাহীর ২ জন, নাটোরের ৩ জন ও নওগাঁর ১ জন রয়েছেন।

তিনি আরও জানান, রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ৯ জন। এ নিয়ে ২৪০ বেডের বিপরীতে মোট ভর্তি রোগী আছেন ১২৯ জন।

আগের দিন রাজশাহীর ২টি পিসিআর ল্যাবে রাজশাহী জেলার ৩০৯টি নমুনা পরীক্ষায় ২৫ জনের করোনা পজিটিভ আসে। রাজশাহীতে শনাক্তের হার ৮.৯ শতাংশ।


আরও খবর



ফের আইসিইউতে ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলে

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আবারও হাসপাতালে ভর্তি ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলে। হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরার ৭ দিনের মাথায় শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) তাকে সাও পাওলোর একটি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র তথা আইসিইউতে রাখা হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন খবর জানানো হয়েছে।

এই মাসের শুরুতে পেলের কোলন টিউমার অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল। সব কিছু ঠিক ঠাক থাকায় গত সাতদিন আগে হাসাপাতাল থেকে তাকে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। শুক্রবার তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে সাও পাওলোর আলবার্ট আইনস্টাইন হাসপাতালের আইসিইউ কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। সার্বক্ষণিক ডাক্তারি পরিচর্যার মধ্যে রাখা হয়েছে তিনবারের বিশ্বকাপ জয়ী ৮০ বছর বয়সী এই তারকাকে। তবে হাসপাতাল থেকে পেলের বিষয়ে এর বেশি কিছু জানানো হয়নি

পেলে লম্বা সময় ধরে নিতম্বের সমস্যায় ভুগছেন এবং ঠিকমতো হাঁটতে পারেন না। তাছাড়া করোনার কারণে তিনি জনসম্মুখে আসেন না বললেই চলে। তার সান্তোসের বাড়ির আঙ্গিনায় গুটিকয়েকবার দেখা গেছে তাকে। পেলে ব্রাজিলের হয়ে ৯২ ম্যাচ খেলেছিলেন। গোল করেছিলেন ৭৭টি। যা ব্রাজিলের হয়ে করা যেকোনো খেলোয়াড়ের সর্বোচ্চ।


আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




রোগমুক্তির মহাপ্রসাদ খাইয়ে অজ্ঞান করে চুরি

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শুভ্র শুশ্রুষা মণ্ডিত চেহারা, ধবধবে সাদা রঙের পাঞ্জাবি এমন আধ্যাত্মিক চেহারার এই ব্যক্তিকে সন্দেহের চোখে দেখবে এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। শুধু উনার বাহ্যিক লেবাস অথবা চেহারা দেখেই নয় তার নানান ভেল্কিবাজিতে যে কোনো সাধারণ মানুষের মধ্যে সাধু বাবার 'অলৌকিক ক্ষমতা' সম্পর্কে বিশ্বাস তৈরি হতেই পারে।

চোখের পলকে মাটি তুলে হাতের জাদুতে স্যাকারিন মিশিয়ে মিষ্টি মাটি তৈরি করে মানুষকে খাওয়ানো কিংবা কাগজে ফু দিয়ে আগুন ধরানো কি না পারেন তিনি!

এর পর আপনার সমস্যা সমাধানে বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে বিভিন্ন পূজা-অর্চনা করে আপনাকে আস্থায় আনবেন এই সাধু। তার পর সময় সুযোগমতো খাবারের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে সব রোগমুক্তির 'মহাপ্রসাদ' খাওয়াবে বাড়ির প্রত্যেক সদস্যকে!

এভাবেই মানিকগঞ্জে রাতের আঁধারে এক পরিবারের সব সদস্যকে অচেতন করে শরীরের স্বর্ণালংকার, টাকা ও মোবাইল সেটসহ মূল্যবান সামগ্রী নিয়ে চম্পট দেন প্রতারক ওই 'সাধু বাবা' বাচ্চু প্রধান (৭৩)।

 মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার আন্ধারমানিক এলাকায় এমনই এক নাটকীয় ঘটনা ঘটে। একই পরিবারের ছয় সদস্যকে ঘুমের ওষুধ মিশ্রিত 'প্রসাদ' খাইয়ে রাতের আঁধারে এই প্রতারক লুটে নেয়- নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ফোন। 

ঘটনার দিন অনেক বেলা হয়ে গেলেও অচেতন ৬ ব্যক্তির কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে প্রতিবেশীরা খবর দেন স্থানীয় কাউন্সিলর আবু মোহাম্মদ নাহিদকে। তিনি প্রতিবেশীদের সঙ্গে নিয়ে একই বাড়ির তিনটি ঘরে ওই ছয় সদস্যকে অচেতন ও মুমূর্ষু অবস্থায় পান।

একই পরিবারের ছয় সদস্যের এই রহস্যজনকভাবে অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন শুনে মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ভাস্কর সাহা পিপিএম ও সদর থানার ওসি আকবর আলী খান মানিকগঞ্জ থানা পুলিশের টহলদলসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে স্থানীয় কাউন্সিলরের সহয়াতায় অজ্ঞান ওই  ছয় সদস্যকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করানোর ব্যবস্থা করেন।

পরবর্তীতে প্রায় ২৪-৩৬ ঘন্টা পর তাদের জ্ঞান ফিরলে তাদের অজ্ঞান হওয়ার কারণ সম্পর্কে পুলিশ জানতে পারে।

এই বিষয়ে প্রাথমিকভাবে পুলিশের পক্ষ থেকে একটি জিডি করে রাখা হয়। পরিবারের অভিভাবক পঙ্কজ কুমার মণ্ডল সুস্থ হয়ে থানায় বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ভাস্কর সাহা গোয়েন্দা তথ্য ও ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় প্রতারক ওই সাধুবাবাকে শনাক্ত করে তার অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হন।

গত ১৮/সেপ্টেম্বর মানিকগঞ্জ থানার এসআই টুটুল উদ্দিন ও এসআই মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে একটি চৌকশ পুলিশ দল প্রতারক ও চোরকে গ্রেফতারের উদ্দেশ্যে চাঁদপুর জেলার মতলব দক্ষিণ থানায় অভিযান চালান। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়ির পাশের পুকুরে ঝাঁপিয়ে পালানোর চেষ্টা করে অভিযুক্ত সাধুবাবার বেশধরা প্রতারক বাচ্চু প্রধান (৭৩)।

তার বাড়ী মতলবের দক্ষিণের  নারায়নপুর গ্রামে।  ৬ সন্তানের জনক বাচ্চু প্রধান পুলিশের কাছে জানিয়েছেন, তিনি ৭/৮ বছর ধরে এধরনের প্রতারণার কাজ চালিয়ে আসছেন।

এসআই মনিরুজ্জামান পুকুরে ঝাঁপিয়ে পরে তাকে পানি থেকে উদ্ধার করে গ্রেফতার করেন। এইসময় বাচ্চু প্রধানের স্বীকারোক্তি মতে তার হেফাজত থেকে উদ্ধার করা হয় লুন্ঠিত মোবাইল, স্বর্ণালংকার ও নগদ অর্থ ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত প্রতারক একই কায়দায় ইতোপূর্বে দেশের বিভিন্ন স্থানে মানুষকে অচেতন করে সর্বস্ব লুটে নিয়েছে। তাকে মানিকগঞ্জ থানায় রুজুকৃত মামলায় গ্রেফতার করেছে। পরে রবিবার আসামি আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রতারক বাচ্চু আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বিকারোক্তি মুলক জবানবন্দি দেওয়ার  প্রতিশ্রুতি দেওয়ার তার ব্যাপারে কোনো রিমাণ্ড আবেদন চাওয়া হয়নি।  

 

নিউজ ট্যাগ: অজ্ঞান করে চুরি

আরও খবর



বিয়ে করছেন ঋতাভরী চক্রবর্তী

প্রকাশিত:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টালিউডের এ প্রজন্মের আলোচিত অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী বিয়ে করছেন। পাত্রের নাম তথাগত চট্টোপাধ্যায়। আগামী ডিসেম্বরেই বাগদান করবেন তারা। এরপর কয়েক মাস লিভ-ইন করে গাঁটছড়া বাঁধবেন এ জুটি। মাস দুয়েক আগেই গুঞ্জনটি ছড়িয়েছিল। আগে অস্বীকার করলেও অবশেষে গণমাধ্যমের কাছে ঋতাভরী খবরটি স্বীকার করেছেন।

অসুস্থতার কারণে কয়েক মাস বিষাদগ্রস্ত ছিলেন তিনি। ওই সময়েই তথাগতর আগমন ঘটে ঋতাভরীর জীবনে। যদিও এর আগে মুম্বাইয়ের এক যুবকের সঙ্গে প্রেম ছিল তার। তবে শারীরিকভাবে কাছাকাছি না থাকায় সে প্রেম টেকেনি বলে জানিয়েছেন ঋতাভরী। তার ভাষ্য, ওই পরিস্থিতিতে আমার পাশে কাউকে খুব দরকার ছিল।

তথাগতর সঙ্গে পরিচয়ের ঘটনা জানিয়ে ঋতাভরী বলেন, এ বছরের প্রথম দিকে ওর ক্লিনিক উদ্বোধনে গিয়েছিলাম। ও পেশায় একজন মনোবিদ। সে সময়ে ওরও অন্য বান্ধবী ছিল। আমরা প্রথমেই খুব ভাল বন্ধু হয়ে গিয়েছিলাম। অবশ্যই বলতে হবে, বাঙালি ছেলেকে ডেট করার অন্য আরাম আছে। বাংলায় কথা বলা যায়। সেই সঙ্গে রুচি, শিল্পবোধ এ সবের মিল তো রয়েছেই।

প্রেমিকের সঙ্গে বাইরে খুব কমই ডেট হয়েছে ঋতাভরীর। তার বাসাতেই তথাগত আসতেন বলে জানালেন অভিনেত্রী। তিনি বলেন, সে অর্থে ডেট করা অর্থাৎ দেখা করা, কফি খেতে যাওয়া; এ সব আমাদের হয়নি বললেই চলে। যখন ওকে ভাল করে চিনতে শুরু করেছি, তখন আমি শয্যাশায়ী। দ্বিতীয় সার্জারির পরে ও আমার বাড়িতেই আসত দেখা করতে। ফলে খুব তাড়াতাড়ি আমরা কাছাকাছি এসেছিলাম। ধীরে ধীরে অনুভব করতে শুরু করলাম, আমিও কারও ওপর নির্ভর করতে পারি।

বিয়ের আগে কিছু দিন একসঙ্গে থাকতে চান ঋতাভরী। এটাই ছিল তার প্রথম শর্ত। এ জন্য দুই পরিবারকেই মানিয়ে নিতে হয়েছে তাদের। অভিনেত্রী বলেন, সত্যি বলতে, এর আগে কাউকে দেখে মনে হয়নি, তার সঙ্গে সংসার করতে পারব। তবে আমার কিছু বলার আগেই হঠাৎ একদিন ও-ই বলল, তুমি পাশে থাকলে তোমার প্রতি কেমন যেন বউ বউ ফিলিং আসে।

আমার একটাই শর্ত ছিল, যাকে বিয়ে করব, বিয়ের আগে তার সঙ্গে কিছু দিন থাকতে চাই। কিন্তু দুই বাঙালি পরিবার ব্যাপারটাকে কী ভাবে নেবে জানি না। তাই ঠিক হল, এ বছর ডিসেম্বরে বাগদান করে আমরা একসঙ্গে থাকব আমার বাড়িতে। কোভিড পরিস্থিতি ঠিক হলে পরের বছর বা তার পরের বছর জাঁকজমক করে বিয়ে করব। বিয়ের পরে অবশ্য সল্টলেকেই নতুন একটা বাড়িতে থাকব, যেটা আমাদের দুজনের বাড়ি থেকেই কাছে হবে।


আরও খবর
আক্রমণাত্মক মন্তব্যের শিকার নুসরাত

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মোমেনের বৈঠক বৃহস্পতিবার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | ৬০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাবের সঙ্গে বৃহস্পতিবার দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হচ্ছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। ব্রেক্সিট ও কোভিড পরবর্তী সহযোগিতা জোরদারের বিষয়ে তাদের আলোচনায় গুরুত্ব পাবে। দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তিতে লন্ডনের এই বৈঠক হবে ঐতিহাসিক উপলক্ষ।

মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা জানায় লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বর্তমানে জেনেভায় অবস্থান করছেন। আগামী বুধবার লন্ডনে পৌঁছাবেন। লন্ডন থেকে তিনি নেদারল্যান্ডসে যাবেন। যুক্তরাজ্য সফরে বুধবার হিথ্রো বিমানবন্দরে পৌঁছালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনকে স্বাগত জানাবেন হাইকমিশনার মুনা তাসনিম।

বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিমকে উদ্ধৃত করে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যুক্তরাজ্যের সভাপতিত্বে নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় জলবায়ু সম্মেলনের প্রাক্কালে ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশের অংশগ্রহণের কারণে এই বৈঠক বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ নিয়ে হাজির হয়েছে। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ সব দিক নিয়ে আলোচনা করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বাংলাদেশকে যুক্তরাজ্যের ট্রাভেল রেড অ্যালার্ট তালিকা থেকে বের করে আনার বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হবে। বাংলাদেশি ব্রিটিশ প্রবাসী ও বাংলাদেশ থেকে দক্ষ পেশাজীবীদের কাজের সুযোগ নিয়েও আলোচনা করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। আলোচনায় স্থান পাবে ব্রেক্সিট পরবর্তী বাণিজ্যিক সম্পর্ক, টিকা সহযোগিতা ও ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা উঠানোসহ কোভিড পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য নতুন অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব, বাংলাদেশি-ব্রিটিশ নাগরিক ও বাংলাদেশ থেকে দক্ষ জনশক্তির কর্মসংস্থানের বিষয়।

বাংলাদেশ হাইকমিশন পরিদর্শনে গিয়ে বঙ্গবন্ধু গ্রন্থাগার, বঙ্গবন্ধুর শতবর্ষের পোট্রেট, বঙ্গবন্ধু কনস্যুলার সপ্তাহ ও হাইকমিশনের বর্ধিত অংশের উদ্বোধন করবেন ড. মোমেন। এ ছাড়া কয়েকজন ব্রিটিশ এমপি ও বিশিষ্টজনের সঙ্গে বৈঠকের পাশাপাশি প্রবাসীদের বিভিন্ন আয়োজনে অংশ নেবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন।


আরও খবর



ঢাবির শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ডোপ টেস্টের সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ডোপ টেস্ট করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেটের সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সভায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান সভাপতিত্ব করেন।

সিন্ডিকেট সভা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপ-উপাচার্য বলেন, আজকে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেট সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ডোপ টেস্ট করার নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে।

কবে থেকে ডোপ টেস্ট প্রক্রিয়া শুরু হবে জানতে চাইলে অধ্যাপক ড. মাকসুদ কামাল বলেন, আমরা এটা এখন থেকে শুরু করবো। তবে শুরু করার আগে আমাদের প্রস্তুতির প্রয়োজন রয়েছে। সেই প্রস্তুতির জন্য আমাদের মেডিকেলের ডিনকে আহ্বায়ক করে একটা কমিটি করা হয়েছে। ওই কমিটি কবে থেকে শুরু করবে, কীভাবে শুরু করা হবে, তার একটি নীতিমালা প্রণয়ন করবেন।


আরও খবর
১৪ নভেম্বর থেকে দাখিল পরীক্ষা শুরু

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১