আজঃ রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্রের চুল্লি উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | ৪৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাবনার রূপপুরে নির্মাণাধীন পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম নিউক্লিয়ার রি-অ্যাক্টর ভেসেল বা পারমাণবিক চুল্লি উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার বেলা পৌনে ১২টার দিকে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেন তিনি। এই চুল্লি পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যন্ত্রাংশ। যেখানে মূল জ্বালানি ইউরেনিয়াম থাকবে। এটিকে বিদ্যুৎকেন্দ্রের হৃদপিণ্ডও বলা হয়ে থাকে।

চুল্লি স্থাপনের বিষয়টিকে একটি মাইলফলক হিসেবে দেখছেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। এই পারমাণবিক জ্বালানি পুড়িয়ে মূল শক্তি উৎপাদন হবে এবং সেখান থেকে এক হাজার ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব হবে। এই ইউনিটের রিঅ্যাক্টর গত বছর অক্টোবরে রাশিয়া থেকে দেশে এসে পৌঁছায় এবং নভেস্বরে সেটি রূপপুরে নেওয়া হয়। এ বছর আগস্টে দ্বিতীয় ইউনিটের রিঅ্যাক্টর এসেছে।

এই ভারী যন্ত্রগুলো রাশিয়ার ভলগা নদী থেকে প্রায় ১৪ হাজার কিলোমিটার সামুদ্রিক পথ পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশের মোংলা বন্দর দিয়ে রূপপুরের কাছে পদ্মায় এসে পৌঁছায়। এ রিয়্যাক্টর ভেসেলের ওজন ৩৩৩ দশমিক ৬ টন। যা বানাতে দুই বছরের বেশি সময় লাগে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় জানায়, মোট দুই হাজার ৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতার প্রথম ইউনিটটির নির্মাণকাজ ২০২৩ সালের মধ্যে শেষ হবে। এই ইউনিট প্রতিদিন এক হাজার ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারবে এবং আসছে ২৪ সালের মধ্যে এটি বাণিজ্যিক উৎপাদনে যাবে। সমান সক্ষমতার দ্বিতীয় ইউনিটটি  ২৪ সালের শেষ দিকে বাণিজ্যিক উৎপাদনে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। প্রকল্প সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান,  চুল্লিা বসানোর আগে অন্যান্য অবকাঠামোগত কাজগুলো শেষ করা হয়েছে। এখন বাকি যা কাজ রয়েছে তার প্রায় পুরোটাই যান্ত্রিক ও কারিগরি।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের খরচ নির্ধারণ করা হয়েছে ১ লাখ ১৩ হাজার কোটি টাকারও বেশি। যার বেশির ভাগ আসছে রাশিয়ান সরকারের ঋণ সহায়তা থেকে। স্বাধীনতার পর গত ৫০ বছরের মধ্যে রূপপুর প্রকল্পই দেশের সবচেয়ে বড় এবং অর্থনৈতিক দিক থেকে সর্বাধিক ব্যয়বহুল প্রকল্প।

পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০২৩ সালে প্রথম ইউনিট থেকে ১২শ মেগাওয়াট এবং ২০২৪ সালে দ্বিতীয় ইউনিট থেকেও ১২শ মেগাওয়াট অর্থাৎ মোট ২ হাজার ৪শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে।




আরও খবর
মুনিয়া-শারুন আলাপ কী প্রমাণ করে?

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




আসছে করোনার ট্যাবলেট, মৃত্যু অর্ধেকে আসবে দাবি গবেষকদের

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | ১০২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় টিকা আবিষ্কারের পর খুব শিগগির বাজারে আসছে এর ওষুধ। এর ব্যবহার শুরু গলে করোনায় মৃত্যু ও হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা অর্ধেকে নেমে আসছে বলে দাবি করছেন গবেষকরা। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি।

এই ওষুধের প্রস্তুতকারক মার্ক বলেন, করোনা রোগীদের জরুরী ভিত্তিতে সেবা দেওয়ার জন্য আমরা খাদ্য ও ওষুধ অধিদফতরের কাছে আবেদন করবো। আশা করছি কিছুদিনের মধ্যেই তারা জরুরী ব্যবহারের জন্য এই ওষুধের অনুমোদন দেবে। যদি এমন হয়, তাহলে আমাদের এই ওষুধ বিশ্বের বুকে প্রথম করোনার ওষুধ হবে।

এপি জানায়, গবেষণায় ৭৭৫ জন স্বেচ্ছাসেবির ওপর ওষুধটি প্রয়োগ করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৮ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। ১৪ শতাংশ সামান্য অসুস্থতা অনুভব করেছে। তবে কারো মৃত্যু হয়নি।

জানা যায়, মেরেক এবং রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকস নামক মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান এই ওষুধটি নিয়ে গবেষণা করছে। এর নাম দেওয়া হয়েছে মোলনুপিরাভির।

গবেষণায় যুক্ত থাকা গবেষকরা দাবি করছেন, পরীক্ষার স্তর পেরোলে এবং ছাড়পত্র মিললেই বাজারে চলে আসবে এই ওষুধ। শরীরে কোভিড ধরা পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই এই ধরনের ওষুধ খাওয়া শুরু করে দেওয়া যেতে পারে। এতে উপসর্গ বড় আকার নিতে পারে না। উত্তর ক্যারোলাইনা চ্যাপেল হিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইরোলজিস্ট টিমোথি সিয়াহান বলেন, ‘‘শুধু নিজেকে সুস্থ করে তোলাই নয়, অন্যের শরীরে সংক্রমণ ছ়ড়িয়ে পড়া রুখতেও কার্যকরী হয়ে উঠতে পারে এই ওষুধ।’’


আরও খবর



টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | ৩০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রথম রাউন্ডে নিজেদের শেষ ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনির (পিএনজি) বিপক্ষে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। আল আমেরাত স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) ওমানের রাজধানী মাস্কাটের এই মাঠে কোনও পরিবর্তন ছাড়াই নেমেছে বাংলাদেশ দল। অন্যদিকে দুটি পরিবর্তন রয়েছে পিএনজি একাদশে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্ব ওঠার লড়াইয়ে বি গ্রুপে খেলছে টাইগাররা। প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ছয় রানের হারতে হয় লাল-সবুজদের। দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য ঘুরে দাঁড়ায় সাকিব-মোস্তাফিজরা। স্বাগতিক ওমানদের বিপক্ষে ২৬ রানে জয় তুলে মাঠ ছাড়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ নেতৃত্বাধীন দলটি।

অন্যদিকে ওমানের বিপক্ষে পাত্তাই পায়নি প্রথমবারের মতো বিশ্ব আসরে খেলতে আসা পিএনজি। ১০ উইকেটে হেরে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হয় তাদের।

প্রথম রাউন্ডে নিজেদের শেষ ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনির (পিএনজি) বিপক্ষে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। আল আমেরাত স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

অন্যদিকে ওমানের বিপক্ষে পাত্তাই পায়নি প্রথমবারের মতো বিশ্ব আসরে খেলতে আসা পিএনজি। ১০ উইকেটে হেরে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হয় তাদের।

বাংলাদেশ একাদশ

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), লিটন দাস, নাঈম শেখ, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, কাজী নুরুল হাসান সোহান, আফিফ হোসেন, শেখ মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান ও তাসকিন আহমেদ।

পাপুয়া নিউগিনি একাদশ

আসাদ ভালা (অধিনায়ক), লেগা সিয়াকা, চার্লস জর্ডান আমিনি, সেসে বাউ, মন আটাই, হিরি হিরি, নরমান ভানাউ, কিপলিন ডোরিগা, চাদ সোপার, ড্যামিয়েন রাভু, কাবুয়া ভাগি-মরেয়া।


আরও খবর
অজিদের কষ্টার্জিত জয়

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | ২১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৮০১ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২৪৩ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৬৬ হাজার ৯০৭ জন। 

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।


আরও খবর



ধামাকার সিইও সিরাজুলসহ ৩ জন গ্রেফতার

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন ও আকর্ষণীয় ছাড়ে পণ্য বিক্রির ফাঁদ তৈরি করে গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রায় ৫৮৯ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি

প্ররতারণা ও অর্থ-আত্মসাতের অভিযোগে ধামাকা শপিং-এর  সিইও সিরাজুল ইসলাম রানাসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে তাদেরকে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে গাজীপুরের টঙ্গী পশ্চিম থানায় একটি মামলা রয়েছে

আজ বুধবার র‍্যাবের লিগ্যাল আ্যন্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক (এএসপি) আ ন ম ইমরান খান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে আজ দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে।

উল্লেখ্য, চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন ও আকর্ষণীয় ছাড়ে পণ্য বিক্রির ফাঁদ তৈরি করে গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রায় ৫৮৯ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এরই মধ্যে প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি) জসিমউদ্দিন চিশতি যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন। এছাড়া পরিচালনা পর্ষদের বেশির ভাগ সদস্য পালিয়ে বিদেশে চলে গেছেন বলে জানিয়েছে অপরাধ তদন্ত সংস্থা (সিআইডি)। রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটির অফিস বর্তমানে বন্ধ রয়েছে। বন্ধ রয়েছে কাস্টমার কেয়ার সেন্টারের ফোন নম্বরও। এ অবস্থায় দুশ্চিন্তায় পড়েছেন ধামাকায় অর্ডার পেমেন্ট করা হাজারো গ্রাহক।

নিউজ ট্যাগ: ধামাকা শপিং

আরও খবর
ইকবালসহ ৪ আসামির রিমান্ড মঞ্জুর

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ ৭ রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | ৩১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে সাত জন রোহিঙ্গাকে গ্রেপ্তার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। গতকাল মঙ্গলবার রাতে ও আজ বুধবার ভোরে টেকনাফের চাকমারকুল ও উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ ভোরে চাকমারকুল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি ব্লক এলাকায় অভিযান চালিয়ে একরাম হাসান ওরফে মাস্টার একরামকে (২৩) গ্রেপ্তার করে এপিবিএন। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

১৬ আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অধিনায়ক পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম বলেন, বুধবার ভোরে চাকমারকুল ক্যাম্পের বি ব্লকের সাব ব্লক বি/৭-এর কাশেম ও রশিদের ঘরের সামনে ৮ থেকে ১০ জন অস্ত্রধারী রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী অবস্থান নিচ্ছে মর্মে সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আট থেকে ১০ জন দুষ্কৃতকারী দৌড়ে পালাতে থাকে। এ সময় এপিবিএন সদস্যরা ধাওয়া করে দুর্ধর্ষ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী একরাম হাসান ওরফে মাস্টার একরামকে (২৩) একটি দেশি এলএমজিসহ গ্রেপ্তার করে। তিনি চাকমারকুল ক্যাম্পের এ/২ ব্লকের বাসিন্দা। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তিনি আরসার সক্রিয় সদস্য ও ক্যাম্প লিডার। তাঁর নামে টেকনাফ থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তাঁকে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

বুধবার ভোরে কক্সবাজারের চাকমারকুল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি ব্লক এলাকায় অভিযান চালিয়ে একরাম হাসান ওরফে মাস্টার একরামকে (২৩) অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করে এপিবিএন।

অপরদিকে, গতকাল মঙ্গলবার রাতে উখিয়া উপজেলার  কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের চানমিয়া মাঠ সংলগ্ন একটি চায়ের দোকানে অভিযান চালিয়ে দেশি অস্ত্রসহ ছয় জন রোহিঙ্গাকে গ্রেপ্তার করেছে ১৪ এপিবিএন পুলিশ।

আটক রোহিঙ্গারা হলেন কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের চানমিয়া মাঠসংলগ্ন এলাকার জাবের (২৪), শফিকুল ইসলাম (৩২), সৈয়দ মোহাম্মদ (৫২), মো. জমির (২৭), মৌলভী হামিদ হোসেন (৪১) ও মো. হোসেন প্রকাশ ইদ্রিস (৪৩)।

ইরানি পাহাড় এপিবিএন পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী ক্যাম্প কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার পীযুষ চন্দ্র দাস জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালায় এবিপিএন সদস্যরা। এ সময় একটি রামদা, একটি কিরিচ, তিনটি ধামা, একটি নান চাকু ও একটি রডসহ ছয় জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

কক্সবাজার ১৪ এপিবিএন অধিনায়ক এসপি মো. নাইমুল হক জানান, আটকেরা বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।


আরও খবর