আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

সিরিজ জয়ের পথে দক্ষিণ আফ্রিকা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এশিয়ার বাইরে টেস্টে তৃতীয় সেঞ্চুরি ঋষভ পন্থের। তাও আবার দলের বাকিরা যখন সবাই মিলে স্কোরবোর্ডে ৯৮ রান তুলেছেন, তখন একাই শতরান হাঁকিয়েছেন তিনি। অর্থাৎ তার একার রান বাকিদের মিলিত উদ্যোগের চেয়ে বেশি। এমন অবস্থায় নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে তৃপ্ত হওয়া কিংবা গর্ব করা গেলেও দলকে রক্ষা করা হয়তো সম্ভব হয় না।

কেপটাউনে দিনের শেষ ছবিটা যেন সে কথাই বলছে। দ্বিতীয় ইনিংসে দুই উইকেট হারিয়ে ১০০ রানের গণ্ডি পার করল দক্ষিণ আফ্রিকা। আর তাতেই যেন আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠল প্রোটিয়াদের তৃতীয় টেস্ট তথা সিরিজ জয়ের স্বপ্ন। মারক্রামকে দ্রুত প্যাভিলিয়নে ফেরানো গেলেও ক্রিজে জাঁকিয়ে বসেন অধিনায়ক এলগার এবং পিটারসেন। পাঁচ দিনের ফরম্যাটে দারুণ ছন্দে ধরা দিচ্ছেন পিটারসেন। আর তৃতীয় দিনের শেষে ৪৮ রান করে অপরাজিত রইলেন তিনি।

প্রোটিয়ারা একশোর গণ্ডি পার করার পর এলগারকে প্যাভিলিয়নে ফেরান বুমরাহ। জয়ের জন্য আর মাত্র ১১১ রান প্রয়োজন দক্ষিণ আফ্রিকার। হাতে দুইটি দিন এবং আটটা উইকেট। ফলে দুই টেস্ট জিতে সিরিজ পকেটে ভরা যেন হোম ফেভারিটদের কাছে শুধুই সময়ের অপেক্ষা। তবে বাইশ গজের লড়াইতে কোনও ভবিষ্যদ্বাণী সেভাবে খাটে না। বুমারহ-শামি-অশ্বিনরা যদি অঘটন ঘটাতে পারেন, তবে কে বলতে পারে, দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে প্রথম টেস্ট সিরিজ জয়ের স্বাদ কোহলিই দেবেন ভারতবাসীকে। কিন্তু সে গুড়ে বালি দেওয়ার জন্য বদ্ধপরিকর এগলারের সৈনিকরা।

ভারত: ২২৩/১০ (কোহলি-৭৯) ও ১৯৮/১০ (পন্থ-১০০*)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ২১০/১০ (পিটারসেন- ৭২, বুমরাহ-৪২/৫) ও ১০১/২ (পিটারসেন-৪৮*) 


আরও খবর



হিলিতে শীতের তীব্রতায় বিপাকে শ্রমজীবী মানুষ

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দিনাজপুরের হিলিতে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। এ সময় ঘন মেঘে ঢেকে আছে সব অঞ্চল। সোমবার (৩ জানুয়ারি) সকাল ৮টা পর্যন্ত মেলেনি সূর্যের দেখা। একই সঙ্গে বইছে উত্তরের হিমেল ঠান্ডা হাওয়া।

এদিকে ঠান্ডা বেড়ে যাওয়ায় কাহিল হয়ে পড়েছে শহর ও গ্রামীণ জনপদের মানুষ। বিশেষ করে এসব এলাকার শ্রমজীবী মানুষ সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছে। প্রতিদিন হাসপাতালগুলোতে রোগীর ভিড় বাড়ছে। শিশুরা ডায়েরিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে।

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন জানান, সোমবার (৩ জানুয়ারি) দিনাজপুরে ভোর ৬টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০ দশমিক ৬ (দেশের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন) ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসের আর্দ্রতা ৯৫ শতাংশ, বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ৫-৭ কিলোমিটার। তবে বেলা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এটি ঘণ্টায় ১০-১৪ কিলোমিটার পর্যন্ত উন্নীত হতে পারে।

নিউজ ট্যাগ: শীতের তীব্রতা

আরও খবর



করোনার মধ্যেও আমাদের অর্থনীতি চালু রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

২৬তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা-২০২২ আমাদের সক্ষমতার বার্তা আরও জোরালোভাবে পৌঁছে দেবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (১ জানুয়ারি) ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী এই মেলার উদ্বোধন ও আইসিটি পণ্য সেবাকে বর্ষপণ্য-২০২২ ঘোষণা করে এ আশা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সরকারে এসে প্রতিটি পণ্য বেসরকারিভাবে উন্মুক্ত করে দেই। এমনকী মোবাইল ফোন বেসরকারিভাবে উন্মুক্ত করে দেই। কম্পিউটার শিক্ষা দেওয়া ও ব্যবহারের উদ্যোগ আমরা নিয়েছিলাম। আমাদের দেশটা যেন শিল্প-বাণিজ্যে এগিয়ে যেতে পারে, উৎপাদন বাড়াতে পারে, সে উদ্যোগ নিয়েছি। বিশেষ করে নিজস্ব বাজার তৈরিতে আমরা মনোনিবেশ করি। কারণ শিল্পায়নের ব্যাপক প্রসার ঘটবে নিজস্ব বাজার তৈরি হলে।

তিনি বলেন, একটা স্থায়ী মেলার ব্যবস্থা করে দিয়েছি। প্রথম অনুষ্ঠান করছেন, কিছু কিছু সমস্যা থাকতে পারে। আমি তো কাঠামো করে দিয়েছি, বাকিগুলো আপনারা (ব্যবসায়ী) সমাধান করে নেন। এই মেলার ফলে পণ্যের চাহিদা জানা ও সে আলোকে পণ্য তৈরি ও বাজারজাতকরণের আইডিয়া পাওয়া যাবে। পাশাপাশি অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে সৌহার্দ্য ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বৃদ্ধি করবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।

২৩টি দেশের সঙ্গে বাণিজ্য প্রসারে আমাদের সমীক্ষা শেষ করেছি। নানা ধরনের চুক্তি তাদের সঙ্গে আমরা করবো। আমরা চাই, বাণিজ্যিক কূটনীতি প্রসার হোক, যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকার প্রধান বলেন, করোনায় ব্যবসা ধরে রাখতে এবং এগিয়ে যেতে নানা প্রণোদনা দিয়েছি। করোনায় ব্যাংকের সুদ ৫০ ভাগ আপনাদের দিতে হবে, বাকিটা আমরা ভর্তুকি দিয়ে দিচ্ছি। এই করোনায় অনেক দেশের অর্থনীতি স্থবির হয়ে গেছে। আমাদের অর্থনীতি চালু রাখতে সক্ষম হয়েছি। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তবে কিছুটা ধাক্কা লেগেছে। সেটাও অতিক্রম করতে পারবো বলে বিশ্বাস করি। যে আদর্শ নিয়ে জাতির পিতা দেশ স্বাধীন করেছেন, সেটা অবশ্যই পূরণ করতে হবে।

এসময় প্রধানমন্ত্রী আইসিটি পণ্য সেবাকে বর্ষপণ্য-২০২২ ঘোষণা করে বলেন, রপ্তানি নীতি অনুযায়ী প্রতিবছর একটি পণ্যকে বর্ষপণ্য বা প্রোডাক্ট অব দ্য ইয়ার ঘোষণা করি। এবার আইসিটি পণ্য বা সেবাকে বর্ষপণ্য ২০২২ ঘোষণা করছি।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সির সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ ও এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি জসিম উদ্দিন।

নিউজ ট্যাগ: বাণিজ্যমেলা

আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




সেবা নিতে এসে মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হন: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সেবা নিতে এসে কোনো মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হন বলে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল ১০টার পর রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুদ্ধাচার বাস্তবায়নের পাশাপাশি দুর্নীতি প্রতিরোধে সোচ্চার হতে হবে। সব ভয়-ভীতির ঊর্ধ্বে থেকে কাজ করার জন্য জেলা প্রশাসকদের আহ্বান জানান তিনি।

দেশে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট সংক্রমিত হচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী ডিসিদের সজাগ থেকে কাজ করতে পরামর্শ দেন। এর আগে ডিসি সম্মেলনে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার।


আরও খবর



লঞ্চে আগুন: জানাজা সম্পন্ন ৩০ মরদেহের

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ ডিসেম্বর ২০২১ | ৩৮০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অভিযান-১০ ট্র্যাজেডিতে লঞ্চ অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪১ জনের মধ্যে ৩৭ জনই বরগুনার বাসিন্দা। এর মধ্যে পাঁচজনকে শনাক্ত করে লাশ নিয়ে গেছেন স্বজনরা। তবে ৩২ লাশ শনাক্ত করার মতো অবস্থায় না থাকায় ডিএনএ রেখে গণজানাজার মাধ্যমে দাফন করেছে বরগুনা জেলা প্রশাসন।

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শনিবার বেলা ১১টায় বরগুনা সার্কিট হাউজ কেন্দ্রীয়  ঈদগাহ্ মাঠে সর্বস্তরের মানুষ জানাজায় অংশগ্রহণ করেন।

ঝালকাঠি থেকেই বরগুনার চারটি মরদেহ শনাক্ত করে নিয়ে যান স্বজনরা। শুক্রবার রাত সোয়া ১১টার দিকে ঝালকাঠি থেকে ৩৩ লাশ বরগুনা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এরপর সদর উপজেলার নলটোনা গ্রামের এক যাত্রীর লাশ শনাক্ত করে নিয়ে যান স্বজনরা।

গত বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ৩টার দিকে ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের শিকার হয় যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি অভিযান-১০। এটি ঢাকা থেকে বরগুনার উদ্দেশে আসছিলো।

বরগুনার জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, অভিযান-১০ ট্র্যাজেডিতে নিহত এবং আহতদের মধ্যে বেশিরভাগই বরগুনার নাগরিক। ইতোমধ্যে পাঁচ লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। জানাজার মাঠে আরও একজনকে শনাক্ত করে তার পরিবার। তাই তাদের মাঠেই লাশ হস্তান্তর করা হয়। এছাড়া ৩২টি মরদেহ শনাক্ত করার মতন অবস্থায় না থাকায় সম্মিলিত জানাজার মাধ্যমে পোটকাখালিতে লাশ দাফন করা হয়।

উল্লেখ্য, লঞ্চ অগ্নিকাণ্ডে প্রত্যেক নিহতের পরিবারকে ২৫ হাজার এবং আহতদের ১৫ হাজার টাকা করে সহায়তা প্রদান করেছে বরগুনা জেলা প্রশাসন।

নিউজ ট্যাগ: লঞ্চে আগুন

আরও খবর



করোনা: সংক্রমণ ও শনাক্তের হার বেড়েছে

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগের দিনের চেয়ে কমলেও গত ২৪ ঘণ্টাতেও করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ ১১শ ছাড়িয়েছে। এ নিয়ে টানা তৃতীয় দিনের মতো করোনা সংক্রমণ ১১শ ছাড়াল। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টাতেও নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের বেশি। আগের দিনের তুলনায় এই হার আরও বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় অবশ্য আগের দিনের মতোই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন এক জন।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের উপপরিচালক ও কোভিড ইউনিটের প্রধান ডা. মো. জাকির হোসেন খানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে গত ২৪ ঘণ্টার করোনা সংক্রমণের তথ্য জানানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে ৮৫২টি ল্যাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৫২টি, জিন এক্সপার্ট ল্যাব ৫৭টি ও র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট ল্যাব ৬৪৩টি।

এসব ল্যাবে পরীক্ষার জন্য সারাদেশের বিভিন্ন বুথ থেকে ১৮ হাজার ৫৮৬টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। আগের দিনের নমুনাসহ এদিন মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৯ হাজার ২৭৫টি। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে অ্যান্টিজেন টেস্টসহ নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ১ কোটি ১৬ লাখ ৪৯ হাজার ৮১৫টিতে। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৮০ লাখ ৭৭ হাজার ৯৯৯টি, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৩৫ লাখ ৭১ হাজার ৮১৬টি।

দেশে আগের দিন ১ হাজার ১৪৬ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় এ সংখ্যা কিছুটা কমে হয়েছে ১ হাজার ১১৬ জন। এ নিয়ে টানা তৃতীয় দিনের মতো করোনা সংক্রমণ ১১শ ছাড়াল। গত বৃহস্পতিবারে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল ১ হাজার ১৪০ জনের শরীরে। আর এখন পর্যন্ত দেশে মোট করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হলো ১৫ লাখ ৯২ হাজার ২০৯ জনের শরীরে।

এদিকে, আগের দিন নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ছিল ৫ দশমিক ৬৭ শতাংশ। গত কয়েকদিনের ধারাবাহিকতায় গত ২৪ ঘণ্টাতে এই হার আরও বেড়ে হয়েছে ৫ দশমিক ৭৯ শতাংশ। এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগীদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার রোগীর সংখ্যা কমেছে। আগের দিন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ১৭০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় এ সংখ্যা হয়েছে ১৫৪ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ১৫ লাখ ৫০ হাজার ৬৮৮ জন সুস্থ হয়ে উঠলেন। সংক্রমণ বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৩৯ শতাংশ।

আগের দিনের মতোই করোনা সংক্রমণ নিয়ে এক জন মারা গেছেন। চট্টগ্রাম বিভাগের এই নারীর বয়স ৬১ থেকে ৭০ বছর। তিনি সরকারি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এ নিয়ে দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ে মোট ২৮ হাজার ৯৯ জনের মৃত্যু হলো। সংক্রমণ বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৬ শতাংশ।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর