আজঃ রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

সওজের প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ভারতীয় পাসপোর্ট থাকার অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৭৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার কান্তি সাহার বিরুদ্ধে ভারতীয় পাসপোর্ট ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। জাতীয় সংসদের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে গতকাল এই অভিযোগ করেন কমিটির একজন সদস্য।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ সময় সভায় উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে অভিযোগের তদন্ত প্রতিবেদন কমিটির আগামী সভায় উপস্থাপনের জন্য সুপারিশ করা হয়।

জানতে চাইলে সংসদীয় কমিটির সভাপতি একাব্বর হোসেন বলেন, ওই কর্মকর্তা বিভাগের নিয়মনীতি মেনে চলেন না। শুনেছি, তিনি ভারতীয় পাসপোর্ট ব্যবহার করেন। এ অভিযোগের সত্যতা জানতে তাঁকে তলব করা হয়েছে।

কমিটির একজন সদস্য বলেন, কমিটির কাছে অভিযোগ আছে, কলকাতায় তুষার কান্তি সাহার বাড়ি-গাড়ি রয়েছে। তাঁর পরিবারের সদস্যরা সেখানেই থাকেন। তিনি সরকারি কাজে অবহেলা করে প্রায়ই ভারতে যান। এ সময় তিনি সরকারি পাসপোর্ট ব্যবহার করেন না।

কমিটির সদস্য সাংসদ এনামুল হক বলেন, অভিযোগ আছে, অনেকবার ভারত গিয়েছেন কোনো ভিসা ও পাসপোর্ট ছাড়া। তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে। সভাপতি নির্দেশ দিয়েছেন, মন্ত্রণালয়ের সচিবের নেতৃত্বে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন তদন্ত কমিটি করতে।

সংসদীয় কমিটির অভিযোগ প্রসঙ্গে তুষার কান্তি সাহার মোবাইল ফোনে কল দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি। পরে এসএমএস পাঠালেও তিনি কোনো উত্তর দেননি। তাঁর সিলেটের কার্যালয়ে গিয়ে সেখানেও তাঁকে পাওয়া যায়নি।

সংসদ সচিবালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার কান্তি সাহার বিরুদ্ধে প্রাপ্ত অভিযোগসমূহ সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব বা অতিরিক্ত সচিবের মাধ্যমে পুনঃ তদন্তপূর্বক আগামী সভায় উপস্থাপনের জন্য কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

সূত্র জানায়, পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব বাহিনীর মাধ্যমে সড়কের নিরাপত্তা দিতে বলছে সংসদীয় কমিটি। একই সঙ্গে কমিটি সব সেতুর টোল আদায়ে একটি একক সফটওয়্যার ব্যবহারের সুপারিশ করেছে।

নিউজ ট্যাগ: সওজ প্রকৌশলী

আরও খবর



বাঙালির ঐক্যের তান হোক সম্প্রীতির বাংলাদেশ : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | ১৫৫৫জন দেখেছেন
Image

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বাঙালির ঐক্যের তান হোক সম্প্রীতির বাংলাদেশ। বাঙালির বাংলাদেশে, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আজকের সমাজ ব্যবস্থায় মানুষরূপী যে অসুর রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে”।

রবিবার (১০ অক্টোবর) পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে শারদীয় দুর্গা পূজা উপলক্ষ্যে নাজিরপুর উপজেলার দুর্গা মন্দিরের সভাপতি ও সম্পাদকের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়, প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক বিতরণ, ব্যক্তিগত অনুদান প্রদান এবং জেলা পরিষদের অনুদান প্রদান উপলক্ষ্যে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। জেলা পরিষদ পিরোজপুর, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট এবং নাজিরপুর পূজা উদডাপন পরিষদ যৌথভাবে এ মতিবিনিময় সভা আয়োজন করে।

তিনি আরো বলেন, সকল ধর্মই সৃষ্টির কল্যাণের কথা বলে। সত্যকে গ্রহণ করে অসত্যকে বর্জন করার কথা বলে। পরার্থে নিজেকে বিলীন করার কথা বলে। কোন ধর্মই উগ্রতাকে প্রশ্রয় দেয় না। কিছু উগ্র ব্যক্তি আছে যারা নিজেদের মতো করে আলাদা ধর্ম রচনা করে। সে ধর্ম দিয়ে সমাজে সম্প্রীতি নষ্ট করে, মানবতার জয়গানে বিঘ্ন সৃষ্টি করে। তারা মানবতার শত্রু, অসাম্প্রদায়িকতার শত্রু। এরা অস্তিত্বের উৎসমূলে আঘাত করে, ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত করে। এদের বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে”।

মন্ত্রী আরো যোগ করেন, দুর্গাপূজা এখন আর পূজার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। এটা এখন বাঙালির সর্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। আমাদের সৌভাতৃত্ব, সহমর্মিতা, ভালোবাসা আমাদের একটি জায়গায় আবদ্ধ করেছে। সে জায়গা হচ্ছে আমরা সকলে অসাম্প্রদায়িক বাঙালি। যে বাঙালিত্বকে প্রতিষ্ঠার জন্য আমাদের ত্রিশ লাখ শহিদ রক্ত দিয়েছিল, দুই লাখ মা-বোন সম্ভ্রম দিয়েছিল”।

নাজিরপুর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুখরঞ্জন বেপারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাঈদুর রহমান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেবেকা খান, নাজিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অমূল্য রঞ্জন হালদার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান, পিরোজপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বিমল কৃষ্ণ মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক গোপাল বসু, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি সুরঞ্জিত দত্ত লিটু প্রমুখ।

এর আগে মন্ত্রী নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের দিঘীতে মাছের পোনা অবমুক্ত করেন এবং নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন ও হল রুম নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।


আরও খবর



সাহিত্যে নোবেল পেলেন আব্দুল রাজাক গুরনাহ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | ৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সাহিত্যের নোবেল পুরস্কার জয়ী বাছাই কমিটি সুইডিশ একাডেমিতে যৌন নিপীড়নের ঘটনার পর ২০১৮ সালে সাহিত্যের নোবেল স্থগিত রাখা হয়

এবার সাহিত্যে নোবেল পেলেন তানজানিয়ার ঔপন্যাসিক আব্দুল রাজাক গুরনাহ। প্যারাডাইস নামে তার চতুর্থ উপন্যাসের জন্য তিনি এ সম্মাননা পেলেন। পূর্ব আফ্রিকার দ্বীপ জানজিবারে ১৯৪৮ সালে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তানজানিয়ায় বেড়ে উঠলেও ১৯৬৮ সালে শিক্ষার্থী হিসেবে যুক্তরাজ্যে যান এই সাহিত্যিক। অবসর নেওয়ার আগ পর্যন্ত তিনি ইউনিভার্সিটি অব কেন্টের অধ্যাপক ছিলেন। তিনি ওয়াসাফিরি নামের একটি জার্নালেও সহযোগী সম্পাদক হিসেবে কাজ করছেন।

সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) বিকেলে এক অনুষ্ঠানে নোবেল কমিটি তার নাম ঘোষণা করে।

গত বছর সাহিত্যে নোবেল পেয়েছিলেন মার্কিন কবি লুইস গ্লুক।  সাহিত্যের নোবেল পুরস্কার জয়ী বাছাই কমিটি সুইডিশ একাডেমিতে যৌন নিপীড়নের ঘটনার পর ২০১৮ সালে সাহিত্যের নোবেল স্থগিত রাখা হয়। সুইডিশ একাডেমির এক সদস্যের যৌন নিপীড়নের ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর কমিটি থেকে পদত্যাগ করেন বেশ কয়েকজন সদস্য।

নোবেল ফাউন্ডেশনের আস্থা ফিরে পেতে কমিটিতে ব্যাপক রদ-বদল আনার পর গত বছর সুইডিশ একাডেমি একসঙ্গে দুই বছরের (২০১৮ এবং ২০১৯ সালের) সাহিত্যের নোবেল জয়ীদের নাম ঘোষণা করে। ২০১৮ সালের সাহিত্যের নোবেলজয়ী হিসেবে পোল্যান্ডের ওলগা তুকারচুক এবং পরের বছরের বিজয়ী অস্ট্রিয়ার পিটার হ্যান্ডকে-কে বেছে নেয় সুইডিশ একাডেমি।

এদিকে, গত ৪ অক্টোবর চিকিৎসাবিজ্ঞানে বিজয়ীদের নাম ঘোষণার মাধ্যমে চলতি বছর নোবেল পুরস্কার দেওয়া শুরু হয়েছে। তাপমাত্রা ও স্পর্শের রিসেপ্টর আবিষ্কারের জন্য এবার চিকিৎসা বিজ্ঞানে যৌথভাবে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন ডেভিড জুলিয়াস এবং আর্ডেম প্যাটাপৌসিয়ান। আগামী ১১ অক্টোবর পর্যন্ত বিভিন্ন ক্ষেত্রে নোবেল পুরস্কার ঘোষণা করা হবে।

তাপমাত্রা ও স্পর্শের রিসেপ্টর আবিষ্কারের জন্য চলতি বছর চিকিৎসা বিজ্ঞানে যৌথভাবে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন ডেভিড জুলিয়াস এবং আর্ডেম প্যাটাপৌসিয়ান।

অপরদিকে, পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন তিনজন। এরা হলেন জাপানি আবহাওয়াবিদ স্যুকুরো মানাবে, জার্মান পদার্থবিজ্ঞানী ক্লাউস হাসেলমান এবং ইতালিয়ান পদার্থবিদ জর্জিও পারিসি।

এছাড়া, চলতি বছর রসায়নে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন জার্মানির বেঞ্জামিন লিস্ট ও যুক্তরাষ্ট্রের ডেভিড ম্যাকমিলান। অ্যাসাইমেট্রিক অর্গানোক্যাটালাইসিস নামে অণু তৈরির নতুন এক কৌশল আবিষ্কার করে এ সম্মাননা জিতে নিয়েছেন তারা।

ডিনামাইট আবিষ্কারক আলফ্রেড নোবেল ৩ কোটি ১০ লাখ ক্রোনার রেখে গিয়েছিলেন, আজকের বাজারে যা প্রায় ১৮০ কোটি ক্রোনের সমান। তার রেখে যাওয়া ওই অর্থ দিয়েই ১৯০১ সাল থেকে মর্যাদাপূর্ণ এ পুরস্কারের প্রচলন করা হয়।


আরও খবর



চট্টগ্রামে ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষ্যে বৃহত্তম ধর্মীয় শোভাযাত্রা

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষ্যে দেশের বৃহত্তম ধর্মীয় শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে। আজ বুধবার সকালে নগরীর জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া মাদরাসা থেকে শুরু হওয়া এ শোভাযাত্রায় নেতৃত্ব দেন আল্লামা সৈয়দ মো. সাবের শাহ। আঞ্জুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট শোভাযাত্রার আয়োজন করে।

জশনে জুলুছ নামের বিশাল এই শোভাযাত্রাটি নগরীর ষোলশহর মাদরাসা থেকে শুরু হয়ে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মানুষ এই শোভাযাত্রায় অংশ নেয়।

মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)-এর জন্ম ও ওফাত দিনকে সাড়ম্বরে উদ্‌যাপনে নগরীর জামেয়া সুন্নিয়া মাদরাসার খানকাহ থেকে সকালে শুরু হয় বৃহত্তম এই শোভাযাত্রা। এ বছর শোভাযাত্রার নেতৃত্ব দেন পাকিস্তানের সিরিকোট দরবার শরীফের পীর সাহেব আওলাদে রাসুল খ্যাত আল্লামা সৈয়দ মো. সাবের শাহ। মহানবী (সা.)-এর শুভাগমনের দিনকে উৎসবমুখর করে তোলার লক্ষ্যে জুলুছে অংশ নেন বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

ধর্মীয় শোভাযাত্রাটি চলাকালে পুরো নগরী মুখরিত থাকে হামদ নাতে রাসুলের সুর ও সংগীতে। এভাবে দিনটি উদযাপন করতে পারায় অনুভুতির কথা জানান মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা।

আনজুমানে রাহমানিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট ১৯৭৪ সাল থেকে এ ধরনের আয়োজন করছে। সংস্থাটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোছাহেব উদ্দীন বখতেয়ার বলেন, হজরত মোহাম্মদ (সা.) সমগ্র সৃষ্টির জন্য রহমত। সেই হিসেবে আজকের দিনটি সমগ্র বিশ্বের জন্য খুশির দিন। আল্লাহ পাক নির্দেশ দিয়েছেন, তোমরা কোনো রহমত পেলে খুশি উদযাপন করো। আমরা আমাদের রাসুলে পাক (সা.)-এর শিক্ষা সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে চাই।

করোনার কারণে অন্যবারের চেয়ে পরিসর সংকোচন করা হলেও সর্ববৃহৎ এই জুলুছে লাখো মানুষের উপস্থিতি উৎসবমূখর পরিবেশ মহানবীর প্রতি ধর্মপ্রাণ মানুষের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ বলে জানান আল্লামা সৈয়দ সাবির শাহ।

শোভাযাত্রা শুরুর আগে দেশের অগ্রগতি কামনা করে আল্লামা সাবির শাহ দেশের ও বিশ্বমানবতার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন।


আরও খবর



করোনা: বিশ্বে একদিনে সংক্রমিত তিন লক্ষাধিক

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
এখন পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন চার কোটি ৪৫ লাখ ১৮ হাজার ৪৩৭ জন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু কিছুটা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারাবিশ্বে এ ভাইরাসে চার হাজার ৬২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন তিন লাখ তিন হাজার ১২৭ জন। আর নতুন করে সুস্থ হয়েছেন তিন লাখ ৫১ হাজার ২০৬ জন।

এর আগের ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় পাঁচ হাজার ৬৯০ জনের মৃত্যু হয়। এই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হন তিন লাখ ৪৯ হাজার ৭৪২ জন।

সোমবার (৪ অক্টোবর) সকাল ৯টায় আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪৮ লাখ ১৫ হাজার ৮৯৩ জনের। আর মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২৩ কোটি ৫৭ লাখ ১৮ হাজার ৬৯৪ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২১ কোটি ২৫ লাখ ৮১ হাজার ৬৯২ জন।

এখন পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন চার কোটি ৪৫ লাখ ১৮ হাজার ৪৩৭ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন সাত লাখ ১৯ হাজার ৯৩৩ জন। আর সেরে উঠেছেন তিন কোটি ৩৯ লাখ ৩৮ হাজার ১৪৭ জন।

তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন তিন কোটি ৩৮ লাখ ৩৪ হাজার ২৪৩ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন চার লাখ ৪৯ হাজার ২৯ জন। আর সুস্থ হয়েছেন তিন কোটি ৩১ লাখ ১৩ হাজার ৬৪৪ জন।

তালিকার তৃতীয় অবস্থানে থাকা ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে সংক্রমিতের সংখ্যা দুই কোটি ১৪ লাখ ৬৮ হাজার ১২১ জন। এর মধ্যে পাঁচ লাখ ৯৭ হাজার ৯৮৬ জন মারা গেছেন। আর সেরে উঠেছেন দুই কোটি চার লাখ ৪২ হাজার ৬৫৩ জন।

তালিকায় এরপরের স্থানগুলোতে রয়েছে যথাক্রমে যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, তুরস্ক, ফ্রান্স, ইরান, আর্জেন্টিনা, স্পেন, কলম্বিয়া ও ইতালি।

তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান এখন ২৯ নম্বরে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৫ লাখ ৫৭ হাজার ৯৬৪ জন। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ২৭ হাজার ৫৭৩ জন। আর ১৫ লাখ ১৮ হাজার ৭৫৪ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশের বিপক্ষ দল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশের সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে জয়ের পরেই। তবে গ্রুপসেরা হয়ে পরের রাউন্ডে যাবে দল না রানার্সআপ হয়ে, তা নিশ্চিত ছিল না। সে অনিশ্চয়তা কেটেছে ওমান-স্কটল্যান্ড ম্যাচের পর, যেখানে স্কটিশরা জিতে বি গ্রুপের শ্রেষ্ঠত্ব নিয়ে পাড়ি দিয়েছে পরের রাউন্ডে।

গ্রুপ রানার্সআপ হওয়ায় বাংলাদেশের ঠিকানা হয়েছে সুপার টুয়েলভের গ্রুপ-১ এ। যেখানে মাহমুদউল্লাহ রিদারের দলের প্রতিপক্ষ হিসেবে অপেক্ষায় আছে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দলগুলো। গ্রুপ এ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার টুয়েলভের গ্রুপ ১ এ আসার অপেক্ষায় আছে শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় রাউন্ডে তাদের বিপক্ষেই খেলতে হবে বাংলাদেশকে।

এক নজরে সুপার টুয়েলভে কবে, কার বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কা - ২৪ অক্টোবর শারজাহ - বিকেল ৪টা

ইংল্যান্ড - ২৭ অক্টোবর আবুধাবি - বিকেল ৪টা

ওয়েস্ট ইন্ডিজ - ২৯ অক্টোবর শারজাহ - বিকেল ৪টা

দক্ষিণ আফ্রিকা - ২ নভেম্বর - আবুধাবি - বিকেল ৪টা

অস্ট্রেলিয়া - ৪ নভেম্বর দুবাই - বিকেল ৪টা


আরও খবর
অজিদের কষ্টার্জিত জয়

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১