আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

‘টাকা ছিনিয়ে নিতে বাধা দেওয়ায় অধ্যাপক সাইদাকে হত্যা’

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টাকা ছিনিয়ে নিতে বাধা এবং ডাক-চিৎকার করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টি ও খাদ্যবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সাইদা গাফফারকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার আনারুল ইসলাম (২৫) হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এ কথা জানিয়েছে।

ওই অধ্যাপকের নির্মাণাধীন বাড়ির কনট্রাকটর ও রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন আনারুল।

এর আগে তার দেওয়া তথ্যে শুক্রবার সকালে গাজীপুর মহানগরীর দক্ষিণ পাইনশাইল এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আবাসন প্রকল্পের ভেতরে একটি ঝোপ থেকে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় অধ্যাপক সাইদার লাশ উদ্ধার করা হয়।

মামলার বাদী নিহতের ছেলে সাউদ ইফখার বিন জহির এজাহারে উল্লেখ করেন, তার মা কাশিমপুর থানাধীন দক্ষিণ পাইনিশাইল এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আবাসন প্রকল্পে তার মালিকানাধীন প্লটে বাড়ি নির্মাণকাজ করার জন্য ওই আবাসিক প্রকল্প সংলগ্ন দক্ষিণ পানিশাইল মোশারফ মৃধার বাড়ির দ্বিতীয় তলায় একটি ভাড়া ফ্ল্যাটে থাকতেন। সেখান থেকে আবাসিক প্রকল্পের মধ্যে বাড়ির নির্মাণকাজ দেখাশোনা করতেন।

এতে বলা হয়, গত ১১ জানুয়ারি আনুমানিক রাত ৮টার দিকে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী আমার ছোট বোন হেমেল মাকে তার মোবাইলের মেসেঞ্জারে ম্যাসেজ পাঠান। মা ওই ম্যাসেজ সিন না করায় পরদিন সকাল ৮টার দিকে মায়ের মোবাইলে ফোন দিলেও মা ফোন রিসিভ করেননি।

এজাহারে বলা হয়, পরে বাড়ির নির্মাণকাজের কনট্রাকটর আনারুল ইসলাম ফোন দিয়ে আমার মামা তৈয়ব ও শেখ শমসের গাফফারকে জানায় আজকে ম্যাডাম (আমার মা) আসেনি এবং ফোন বন্ধ। তখন মামা কনট্রাকটর আনারুলকে বাসায় গিয়ে টাকা আনতে বলে।

পরে নির্মাণকাজের লেবার নজরুল আমার মায়ের বাসায় গিয়ে দেখে যে, গেইট খোলা, আলমারিতে চাবি ঝুলছে এবং অন্য আলমারি খোলা এবং মাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তার মোবাইল ফোনও বন্ধ উল্লেখ করা হয় এজাহারে।

এতে বলা হয়, ওই সংবাদের ভিত্তিতে গত ১২ জানুয়ারি রাত সোয়া ৯টার দিকে আমার মায়ের ভাড়া করা বাসায় এসে মাকে না দেখতে পেয়ে এবং সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে আমার বোন সাদিয়া আফরিন কাশিমপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

নিহতের ছেলে আরও জানান, কাশিমপুর থানার পুলিশ জিডির তদন্তকালে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গাইবান্ধা সাদুল্যাপুর থানার বুজুর্গ এলাকার আনসার আলীর ছেলে মো. আনারুল ইসলাম আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

বাদীর ধারণা, আসামি আনারুল অজ্ঞাত সহযোগীদের সহায়তায় তার মাকে হত্যা করে লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে জঙ্গলের মধ্যে ফেলে রাখে।

ভাড়া বাসা থেকে আনুমানিক এক কিলোমিটার দূরে তার লাশটি পাওয়া যায়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন কাশিমপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ মিজানুর রহমান জানান, সাধারণ ডায়েরি করার পর নির্মাণাধীন বাড়ির প্লটে গিয়ে খোঁজ-খবর নেওয়া হয়। পরে ওই প্লটে কর্মরত রাজমিস্ত্রি আনারুলকে গাইবান্ধা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আনারুল হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে। সে জানিয়েছে, প্রফেসর সাইদা গাফফারের হাতে টাকা দেখে সে ছিনিয়ে নিতে চায়। এ সময় প্রফেসর সাইদা গাফ্ফার ডাক-চিৎকার দিলে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যায় আনারুল।

নিহত সাইদা গাফফারের স্বামী মৃত জহিরুল হক। তার ছেলে সাউদ ইফখার বিন জহির ঢাকার উত্তরার পশ্চিম থানার ১২নং রোডের ১৭নং বাড়িতে বসবাস করেন। নিহতের তিন মেয়ের মধ্যে দুই মেয়ে অস্ট্রেলিয়ায় এবং একজন দেশে থাকেন।


আরও খবর



বিপিএলের এবারের আসরে দল পেলেন না মাশরাফি-তামিম-রিয়াদ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | ৬৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অনিশ্চয়তার মেঘ কাটিয়ে ২১ জানুয়ারিতে মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) অষ্টম আসর। টুর্নামেন্ট সামনে রেখে ২৭ ডিসেম্বর ঢাকার র‌্যাডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে অনুষ্ঠিত হবে প্লেয়ার্স ড্রাফট।

তার আগেই অটো চয়েজ সুবিধায় বিপিএলে দল পেয়ে গেলেন জাতীয় দলের তিন তারকা - অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান, কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান ও অন্যতম বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদ।

অথচ এই অটো চয়েজে দল পাননি জাতীয় দলের পঞ্চপাণ্ডবের অন্যতম তিন তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজা, তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

জানা গিয়েছিল, এবারের বিপিএলে প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগে প্রতিদল তিনজন করে বিদেশি আর একজন করে স্থানীয় ক্রিকেটার দলে নিয়ে রাখতে পারবে। যারা থাকবেন ক্যাটাগরিতে।

সেই সুবিধায় সবার আগেই উঠে আসে সাকিবের নাম। ফরচুন বরিশালের হয়ে খেলবেন তিনি। ধারণা করা হচ্ছিল, এর পর একে একে তামিম, রিয়াদ, মুশফিক ও মাশরাফিকে নেবে বাকি ৫ দল।

কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে অটো চয়েজ হিসেবে নাসুম আহমেদকে নেয় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ফ্র্যাঞ্চাইজি। মোস্তাফিজকে দলে নিয়েছে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স।

এর বাইরে বাকি তিন দল ঢাকা, খুলনা ও সিলেটও পছন্দের ক্রিকেটার বেছে নিয়েছে। সে তালিকায় মুশফিকুর রহিমের নাম থাকলেও নেই ক্যাটাগরির তিন শীর্ষ তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজা, তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ঢাকার অটো চয়েজ সৌম্য সরকার। সিলেটের অটো চয়েজ তাসকিন আহমেদ। আর খুলনার অটো চয়েজ মুশফিকুর রহিম। মাশরাফি, তামিম ও রিয়াদকে কোনো দল অটো চয়েজে রাখেনি।

অর্থাৎ এ তিন শীর্ষ তারকার ভাগ্য ঝুলে আছে ২৭ তারিখে। সেদিন প্লেয়ার্স ড্রাফটে ক্যাটাগরিতে রাখা এই তিন শীর্ষ তারকাকে যে কোনো দল তাদের কিনতেও পারে আবার নাও কিনতে পারে। সে হিসেবে এ তিন তারকার বিপিএল খেলা এখনো অনিশ্চয়তার দোলাচলে।


আরও খবর



ইসি গঠনে রাষ্ট্রপতিকে তিন দফা প্রস্তাব বিএনএফের

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গণতন্ত্রের স্বার্থে রাজনীতিতে আর্থিক বিষয়কে প্রাধান্য না দিয়ে নেতাকর্মীদের ত্যাগ-তিতিক্ষা এবং দলের নীতি-আদর্শকে মূল্যায়ন করতে হবে

একটি স্বাধীন নিরপেক্ষ এবং গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কমিশন গঠনের লক্ষ্যে চলমান সংলাপের সপ্তম দিনে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদকে তিন দফা প্রস্তাবনা দিয়েছেন বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ)।

সংলাপ শেষে রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদীন সাংবাদিকদের ব্রিফ কালে জানান, আজ বুধবার বিকেলে বিএনএফ এর প্রসিডেন্ট এসএম আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বঙ্গভবনের দরবার হলে অনুষ্ঠিত আলোচনায় অংশ নেয়। বিএনএফের নেতৃবৃন্দ সংবিধানের ৫৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে নির্বাচনকালীন সরকার গঠনের প্রস্তাব দেন।

তারা নির্বাচন কমিশন গঠনে অনুসন্ধান (সার্চ) কমিটি মাধ্যমে গঠনের প্রস্তাব করেন এবং এই কমিটিতে অনধিক পাঁচ জনকে নিয়োগ করতে পারেন এ কমিটিতে তারা পাঁচজনের নাম প্রস্তাব করেন।

বিএনএফ এর প্রতিনিধিদল নির্বাচন কমিশন গঠনে রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আলোচনার উদ্যোগ নেয়ার জন্য রাষ্ট্রপতিকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।

প্রতিনিধি দলকে বঙ্গভবনে স্বাগত জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, গ্রহণযোগ্য একটি নির্বাচন কমিশন যাতে গঠন করা যায় সে জন্য রাজনৈতিক দলগুলোর সুচিন্তিত মতামত খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

রাষ্ট্রপ্রধান বলেন, গণতন্ত্রের স্বার্থে রাজনীতিতে আর্থিক বিষয়কে প্রাধান্য না দিয়ে নেতাকর্মীদের ত্যাগ-তিতিক্ষা এবং দলের নীতি-আদর্শকে মূল্যায়ন করতে হবে।

গণতন্ত্রকে কেবল নির্বাচনের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে প্রতিনিয়ত চর্চার মাধ্যমে ছড়িয়ে দিতে হবে, তিনি যুক্ত করেন।

রাষ্ট্রপতি এ ব্যাপারে  জনগনকে উদ্বুদ্ধ করতে রাজনৈতিক দলগুলোকে উদ্যোগ নেওয়ার ও আহ্বান জানান। রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মোঃ জয়নাল আবেদীন এবং সচিব (সংযুক্ত) মোঃ ওয়াহিদুল ইসলাম খান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

গত ২০ ডিসেম্বর প্রথম দিনে সংসদে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সাথে সংলাপে বসে রাষ্ট্রপতি হামিদ। এ পর্যন্ত মোট সাতটি রাজনৈতিক দলের সাথে সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। চলমান সংলাপের আগামী ২ জানুয়ারি  বৈঠক হবে গণফোরামের সাথে সন্ধ্যা ছয়টায় এবং বিকল্প ধারা বাংলাদেশ এর সাথে সন্ধ্যা সাতটায়, আগামী ৩ জানুয়ারি সংলাপ হবে গণতন্ত্রী পার্টির সাথে সন্ধ্যা ৭ টায় এবং বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির সাথে সন্ধ্যা সাতটায়। অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আলোচনার তারিখ এখনো নির্ধারিত হয়নি।

এর আগে নবম, দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে রাজনৈতিক দলগুলোর অংশগ্রহণে সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। রাষ্ট্রপতিকে সিইসি এবং অনধিক চারজন নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। গত কয়েকটি মেয়াদে রাষ্ট্রপতি 'সার্চ কমিটি'র সুপারিশের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন গঠন করেছেন।

বর্তমান ইসির পাঁচ বছরের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি। এ সময়ের মধ্যেই রাষ্ট্রপতি নতুন কমিশন গঠন করবেন, যাদের অধীনে অনুষ্ঠিত হবে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন।


আরও খবর



ডা. মুরাদের বিরুদ্ধে ফের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার আবেদন

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমান সম্পর্কে অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান ও উপস্থাপক মহিউদ্দিন হেলাল নাহিদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার আবেদন করা হয়েছে।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস সামছ জগলুল হোসেনের আদালতে বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরামের নেতা মোহাম্মদ সাইদুর রহমান এ আবেদন করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে নথি পর্যালোচনা শেষে আদেশ দেবেন বলে জানান।

বাদীপক্ষের আইনজীবী ছিলেন আবু ইউসুফ সরকার।

উল্লেখ্য, গত ১২ ডিসেম্বর একই আদালতে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের নেতা ওমর ফারুক ফারুকী একই অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করেন। এর একদিন পরেই আদালত মামলার আবেদনটি খারিজ করে দেন।

নিউজ ট্যাগ: ডা. মুরাদ হাসান

আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




রংপুরে ভবন নির্মাণে ২৫ কোটি টাকা সাশ্রয়ে ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রংপুর বিভাগীয় সদর দপ্তর কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণে ২৫ কোটি টাকা সাশ্রয় করায় প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিশেষভাবে ধন্যবাদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পাশাপাশি অন্যদেরও বিষয়টি মাথায় রাখার নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) নবনির্মিত রংপুর বিভাগীয় সদর দপ্তর কমপ্লেক্স ভবন এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন তিনি। রংপুর বিভাগীয় সদর দপ্তর কমপ্লেক্সের মাল্টিপারপাস হলে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভবনটি খুবই চমৎকারভাবে তৈরি করা হয়েছে। আধুনিক চিন্তাভাবনা নিয়ে আলো বাতাসের ব্যবস্থা রেখে ১০ তলা ভবন করা হয়েছে। সময়ের আগে কাজ শেষ হয়েছে, টাকাও সাশ্রয় হয়েছে। সব জায়গায় প্রজেক্ট দিলে টাকা সাশ্রয় হয় না, বরং পরে আবার চায়। কিন্তু এখানে (রংপুর বিভাগীয় সদর দপ্তর কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণে) ২৫ কোটি টাকা সাশ্রয় হয়েছে। সেজন্য ধন্যবাদ জানাই। আমি আশা করি, ভবিষ্যতে যারা এমন কমপ্লেক্স করবে, তারাও যেন বিষয়টি মাথায় রাখে।

এসময় শীতবস্ত্র বিতরণ করতে বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন অনেক শীত পড়ছে। আমরা আমাদের সাধ্যমত জনগণের পাশে থাকার চেষ্টা করছি। বিত্তশালীদেরও আহ্বান জানাবো, তারাও যেন এই শীতে শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ায়।

অনুষ্ঠানে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আলী আজম ও রংপুর বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল ওয়াহাব মিয়া প্রমুখ বক্তব্য দেন।


আরও খবর



একাদশে ঠাঁই হলো না আশরাফুলের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) ওয়ানডে ফরম্যাট ইন্ডিপেন্ডেনস কাপের শেষ ম্যাচে একাদশে ঠাঁই হলো না মোহাম্মদ আশরাফুলের । ব্যাট কথা না বলায় দল থেকে বাদ পড়লেন তিনি।

ইস্ট জোনের হয়ে প্রথম দুই ম্যাচে ৫ বলে ০ ও ৫৭ বলে ১৫ রান করেছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক।

তার বদলে একাদশে নেওয়া হয়েছে অভিজ্ঞ ব্যাটার নাদীফ চৌধুরীকে। এছাড়া উইকেটকিপার-ব্যাটার ইরফান শুক্কুরের বদলে একাদশে সুযোগ পেয়েছেন প্রীতম কুমার।

বৃহস্পতিবার লিগ পর্বের শেষ রাউন্ডের ম্যাচে নর্থ জোনের মুখোমুখি হয়েছে ইস্ট জোন। টস হেরে আগে ব্যাটিং করছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নর্থ জোন।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩৫ ওভার শেষে তাদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৪৯ রান।  ৮৭ বলে ৬৬ রান করে রানআউট হয়ে গেছেন রিয়াদ।

 

 


আরও খবর