আজঃ রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

তাস খেলাকে কেন্দ্র করে লক্ষ্মীপুরে জেলেকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লক্ষ্মীপুরে তাস খেলার জন্য ডেকে নিয়ে শরীফ বেপারী (৩৫) নামের এক জেলেকে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। আজ মঙ্গলবার ভোরে আহত অবস্থায় তাকে সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

এর আগে গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শরিফকে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শরীফ সদর উপজেলার চররমনী মোহন ইউনিয়নের পশ্চিম চর রমনীমোহন গ্রামের আবদুল বেপারীর ছেলে। নিহত ব্যক্তি মেঘনা নদীতে মাছ শিকার করতেন। তার মরদেহ সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহতের বাবার আবদুল ব্যাপারীর অভিযোগ, স্থানীয় নাছির মোল্লা, জাহাঙ্গীর মোল্লা, আলমগীর মোল্লা, কাশেম ছৈয়াল ও হযরত আলী মাঝিরা তার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে পিটিয়েছে। তিনি এ হত্যার বিচার চান।

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামান বলেন, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



কিশোর গ্যাং ঠেকাতে বইপড়া ও খেলাধুলা বাড়াতে হবে: র‍্যাব ডিজি

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | ৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিশোর গ্যাং ঠেকাতে বইপড়া ও খেলাধুলা বাড়াতে হবে বলে জানিয়েছেন র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ-আল-মামুন।

শনিবার (২ অক্টোবর) রাজধানীর তেজগাঁওস্থ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনে (এফডিসি) অনুষ্ঠিত কিশোর গ্যাং বৃদ্ধির কারণ নিয়ে ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় এ কথা বলেন তিনি। ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি এ বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

তিনি বলেন, যেখানেই কিশোর গ্যাং কালচার রয়েছে সেখানে কিন্তু আমাদের কিশোররা বিপথে পা বাড়াচ্ছে। সামাজিক আচার-আচরণের বাইরে গিয়ে তারা বিচ্যুত পথে যাচ্ছে। আমরা নিশ্চয় মাথা ব্যথার জন্য মাথা কাটা নয়, মাথাব্যথার ঔষধ দিবো। বিচ্ছিন্নতাবোধ থেকে বের হতে হবে। এজন্য দেশে বই পড়া ও খেলাধুলা আমাদের বাড়াতে আহ্বান জানান তিনি।

জনসচেতনতার ওপর জোর দিয়ে তিনি বলেন, যেভাবেই হোক কিশোর গ্যাং কালচারকে নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। এটার জন্য দরকার জনসচেতনতা। তরুণ প্রজন্মকে কোনোভাবে আমরা ব্যর্থ হতে দিতে পারি না।

র‍্যাব মহাপরিচালক বলেন, আমাদের গর্ব পারিবারিক বন্ধন। পারিবারিক বন্ডিং এর কারণে অনেক নেতিবাচক কাজে আমরা জড়াতে পারি না। এরপরও অনেক কিছু ঘটছে। কিশোররা কেন গ্যাং কালচারে জড়াচ্ছে তা খুঁজে বের করতে হবে।

আমাদের সবারই অনেক দায়িত্ব আছে এবং সবার যথাযথ ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলে, আমরা ২৭২ এর অধিক কিশোর গ্যাং সদস্যকে আটক করেছি। এই কিশোর অপরাধীদের এজন্যই গ্রেফতার করতে হয়েছে, যাতে কিশোর গ্যাং কালচার এবং কিশোর অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

তিনি বলেন, আমাদের তরুণরা যেন গর্বিত নাগরিক হয়, কোন অপরাধে না জড়ায়। তবেই সুন্দর, উন্নত বাংলাদেশ গড়া সম্ভব। আমরা যা করতে পারিনি আমাদের আগামী প্রজন্ম যেন তা করতে পারে। সেজন্য সকলের ঐকান্তিক চেষ্টায় সচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে।

এতে সভাপতিত্ব ও বক্তব্য রাখেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ।


আরও খবর
মুনিয়া-শারুন আলাপ কী প্রমাণ করে?

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




প্রথম অফিশিয়াল ম্যাচে নেই মাহমুদউল্লাহ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে আজ মঙ্গলবার প্রথম অফিশিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। প্রথম প্রস্তুতি ম্যচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। আবুধাবিতে ম্যাচটি শুরু হবে রাত ৮টায়। তবে এই ম্যাচে পাওয়া যাচ্ছে না বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহকে।

অধিনায়কের পিঠের ব্যথা এখনও পুরোপুরি সেরে ওঠেনি। তাই মূল টুর্নামেন্টের আগে তাঁকে নিয়ে ঝুঁকি নেবে না টিম ম্যানেজম্যান্ট। যেমনটা ইঙ্গিত দিলেন দলের সঙ্গে থাকা নির্বাচক হাবিবুল বাশার।

বিসিবির পাঠানো ভিডিও বার্তায় বাশার জানান, টুর্নামেন্ট শুরুর পর আগে যতটা সম্ভব মাহমুদউল্লাহকে বিশ্রাম দিতে চান তাঁরা, চোট নিয়ে খুব বেশি দুশ্চিন্তা নেই। (মাহমুদউল্লাহ) রিয়াদের হালকা পিঠের ব্যথা আছে। মূল খেলা শুরু হলে খুব একটা বিশ্রামের সুযোগ নেই। একের পর এক ম্যাচ আছে। যে কারণে আমরা কোনো ঝুঁকি নিচ্ছি না। ওকে হয়তো প্রস্তুতি ম্যাচেও বিশ্রাম দেওয়া হবে। যেহেতু অভিজ্ঞ ক্রিকেটার, তাকে একটু বিশ্রাম দিয়ে ম্যাচের আগে প্রস্তুত করার চেষ্টা করব।

পিঠে ব্যথা থাকায় অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ ওমান দলের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচটি খেলতে পারেননি। ওমান দলের বিপক্ষে রান পাননি মুশফিক, আফিফ, সৌম্যরা। তাই আজ তাঁদের জন্য রানে ফেরার বড় পরীক্ষা।


আরও খবর
অজিদের কষ্টার্জিত জয়

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




‘মমতা ব্যানার্জি জিতবেন ৫০ হাজার ভোটের ব্যবধানে’

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | ৩৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ভবানীপুর আসনে উপনির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। আগামীকাল রবিবার ভোট গণনার পর ফল প্রকাশ করা হবে। এ আসনে লড়ছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। এ নির্বাচনকে দেখা হচ্ছেতার মুখ্যমন্ত্রিত্ব ধরে রাখার লড়াই হিসেবে। যে কারণে ফল প্রকাশের আগে কে জিতবেন তা নিয়ে নানা মহল থেকে নানা মত আসতে শুরু করেছে। কিন্তু বিজেপির এক নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, এ নির্বাচনে তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি কমপক্ষে ৫০ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয়ী হবেন। তার এই বক্তব্যে অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি। জয়ের মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন রাজ্যের সাবেক বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা অনলাইনের এক খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার ভবানীপুরে ভোট গ্রহণের পর বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের দলের সমালোচনা করে বলেন, ভবানীপুরে মমতা ব্যানার্জির জয় শুধু সময়ের অপেক্ষা। তিনি কমপক্ষে ৫০ হাজার ভোটের ব্যবধানে জিতবেন। তার মতে, বিধান সভার পর ভবানীপুর উপনির্বাচনের ভোটেও একই ভুল করেছে বিজেপি। মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে অবাঙালি প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালকে প্রার্থী করা বিজেপির বড় ভুল হয়েছে।

তার এই বক্তব্যের সমালোচনা করে বিজেপির সর্ব ভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, যারা নির্বাচনে কাজ না করে ঘরে বসে এসব কথা বলেন, তাদের কথার কোনো গুরুত্ব নেই। জয়-বিজয়ের কথায় বিজেপি চলে না। প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালকে প্রার্থী করা হয়েছিল বলে ভবানীপুরে বড় লড়াই হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনেরও সমালোচনা করেছেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ভবানীপুরে মমতা ব্যানার্জিকে জেতানোর জন্য উপনির্বাচন করা হয়েছে। শুধু ভবানীপুরে উপনির্বাচন ঘোষণা, তারপর বিজেপি নেতাদের প্রচারণা চালাতে না দেওয়া, নির্বাচন কমিশনের নিষ্ক্রিয়তা সেটাই প্রমাণ করে। তার অভিযোগ, বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে হামলা হয়েছে কিন্তু নির্বাচন কমিশন কোনো উদ্যোগ নেয়নি। আবার ভুয়া ভোটার ধরা পড়েছে, তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এই হলো অবস্থা!

এদিকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কংগ্রেসের সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেছেন, মমতা ব্যানার্জি আগেও জিতেছেন ভবানীপুর থেকে, এবারও জিতবেন। কিন্তু আরো বেশিসংখ্যক মানুষ যদি ভোট দিতেন, তাহলে বার্তা যেত যে, মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে জয়ী করেছেন। কিন্তু তা হয়নি। ৫০ শতাংশের সামান্য বেশি ভোট পড়েছে। অর্থাৎ প্রায় ৫০ শতাংশ ভোটার কোনো রায় দেননি।

যদিও আনন্দবাজার পত্রিকার এক খবরে বলা হয়েছে, গত এক দশকে ভবানীপুরের উপনির্বাচনের চিত্র বদলেছে অনেকটাই। রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনি কর্মকর্তার দপ্তর জানিয়েছে, এবার ভবানীপুরে ভোটদানের হার ৫৭ দশমিক ৯ শতাংশ। ২০১১ সালে ভবানীপুরে উপনির্বাচনের ভোট পড়েছিল ৪৪ দশমিক ৬৭ শতাংশ।


আরও খবর



পাপিয়া ও তার স্বামীসহ চারজনের বিচার শুরু

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিদেশি জাল টাকা উদ্ধারের ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় যুবলীগ নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরীসহ চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এরমধ্য দিয়েই মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হলো।

অপর দুই আসামিরা হলেন- পাপিয়ার সহযোগী সাব্বির খন্দকার ও শেখ তায়িবা নূর।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) ঢাকার মহানগর বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-৬ এর বিচারক ফাতেমা ফেরদৌস আসামিদের অব্যাহতির আবেদন নামুঞ্জর করে অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন। একই সঙ্গে আগামী ২১ নভেম্বর সাক্ষ্য গ্রহণের তারিখ ধার্য করেন আদালত। আসামি পাপিয়া দম্পতির আইনজীবী শাখাওয়াত উল্যাহ ভূঁইয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২০২০ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে জাল টাকা বহন ও অবৈধ টাকা পাচারের অভিযোগে পাপিয়াসহ চারজনকে গ্রেফতার করে র‍্যাব। এরপর তাদের কাছ থেকে সাতটি পাসপোর্ট, বাংলাদেশি দুই লাখ ১২ হাজার ২৭০ টাকা, ২৫ হাজার ৬০০ জাল টাকা, ৩১০ ভারতীয় রুপি, ৪২০ শ্রীলংকান মুদ্রা, ১১ হাজার ৯১ মার্কিন ডলার ও সাতটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।


আরও খবর
ইকবালসহ ৪ আসামির রিমান্ড মঞ্জুর

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




ফের উত্তপ্ত চীন-ভারত সীমান্ত

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের অরুনাচল প্রদেশে বিতর্কিত লাইন অব অ্যাকচুয়াল কনট্রোল (এলএসি) বরাবর তাওয়াং সেক্টরে মুখোমুখি সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দুপক্ষের অসংখ্য সেনা।

গত সপ্তাহে ঘটে এ সংঘর্ষের ঘটনা। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বরাতে শুক্রবার এ খবর জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস। কয়েকদিন আগে চীনা সেনারা ভারতের উত্তরখন্ডেও সীমান্ত পার করে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েছিল। পরে ভারতীয় সেনা সেই স্থানে যাওয়ার কিছু আগে অনুপ্রবেশকারী চীনা সেনা ভারতীয় ভূখণ্ড ত্যাগ করে।

খবরে বলা হয়, গত সপ্তাহে প্রায় ২০০ চীনা সেনাকে আটকে দেয় ভারতীয় সেনারা। লাইন অব কন্ট্রোলের খুব কাছে চলে এসেছিল চীনা লাল ফৌজ। তখনই ভারতীয় সেনারা তাদের আটকে দেয়। কয়েক ঘণ্টা দুদেশের সেনা মুখোমুখি দাঁড়িয়েছিল। একপর্যায়ে দুই তরফের কমান্ডারদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। তবে এ ঘটনায় কোনো পক্ষের কোনো ক্ষতি হয়নি। এই মুহূর্তে এই অঞ্চলে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এর আগে গত বছর সীমান্ত বিবাদের জেরে পূর্ব লাদাখে সংঘর্ষে জড়িয়েছিল ভারত ও চীন। সেই ঘটনায় ভারতীয় সেনার প্রায় ২০ জন সেনাকর্মী মারা গিয়েছিল। চীনা সেনারও প্রায় ৪০ জনের হতাহত হওয়ার খবর মিলেছিল। সেই সংঘর্ষের পর থেকেই ভারত সংলগ্ন বিভিন্ন সীমান্ত সেক্টরে শক্তি বাড়ায় চীন।

লাদাখে সেনা প্রত্যাহারের কথা বলা হলেও বিভিন্ন অজুহাতে সেখানেও সেনা মোতায়েন বাড়িয়েছে বেইজিং। সঙ্গে রয়েছে অত্যাধুনিক অস্ত্রসম্ভার।

তবে যুদ্ধ-সংঘাত নয়, আলোচনার টেবিলেই সমস্যার সমাধান খুঁজছে নয়াদিল্লি। শিগগিরই বৈঠকে বসতে যাচ্ছে দুই দেশের শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তারা। পূর্ব লাদাখ সীমান্ত নিয়ে এটা হবে উভয় পক্ষের ১৩তম বৈঠক। তবে এই বৈঠক সফলতা নিয়ে সন্দিহান বিশেষজ্ঞরা। এর আগে ১২ বার বৈঠক করেও কোনো সমাধান মেলেনি।

সীমান্তে সেনা উপস্থিতিকে কেন্দ্র করে ভারত এবং চীনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই উত্তেজনা বিরাজ করছে। বারবার দুপক্ষের মধ্যে বৈঠক হলেও এ বিষয়ে এখনো কোনো সমাধান মেলেনি। প্যাংগং থেকে চীন তাদের সেনা সদস্যদের সরিয়ে নিলেও এখনো লাদাখের বহু জায়গায় ঘাঁটি রয়েছে দেশটির সামরিক বাহিনীর।

ভারতের সীমান্তবর্তী এলাকায় চীনের টহলদারিও চলছে। সীমান্ত এলাকায় সেনা সরানোর প্রক্রিয়া নিয়ে চলতি আগস্টে ১২তম বৈঠকে বসে নয়াদিল্লি-বেইজিং। কমান্ডার পর্যায়ে প্রায় ৯ ঘণ্টা ধরে আলোচনা হলেও ইতিবাচক কোনো ফল আসেনি।

তবে ভারতের আশা, চীন পূর্ব লাদাখ সীমান্তে অবশিষ্ট সমস্যাগুলোর দ্রুত সমাধান করার চেষ্টা করবে ও দ্বিপাক্ষিক চুক্তি মেনে চলবে। এ প্রসঙ্গে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেন, চীনের পক্ষ থেকে উসকানিমূলক আচরণ এবং একতরফা পদক্ষেপের ফলে এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে।

আমাদের আশা যে চীন পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় অবশিষ্ট সমস্যাগুলোর দ্রুত সমাধানের জন্য কাজ করবে এবং দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ও প্রটোকলগুলো সম্পূর্ণরূপে মেনে চলবে। অরুনাচল সীমান্ত নিয়েও ভারতের সঙ্গে চীনের সমস্যা রয়েছে। এই সীমান্ত ১ হাজার ১২৬ কিলোমিটার দীর্ঘ। অরুনাচল প্রদেশকে দক্ষিণ তিব্বতের অংশ হিসাবে দাবি করে বেইজিং। যদিও ভারতের তরফে তার বিরোধিতা করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ভারত চীন

আরও খবর