আজঃ শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

টিকা নিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী, ভাইরাল ভিডিওটি ভুয়া

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ মার্চ ২০২১ | ১৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক


গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সচিবালয় ক্লিনিকে ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। মন্ত্রীর ভ্যাকসিন নেয়ার ভিডিওটি গণমাধ্যমের কাছে সংরক্ষিত আছে। যদিও তার টিকা নেয়ার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভুয়া ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়ে অনলাইনে-অফলাইনে চলছে সমালোচনার ঝড়।

জানা গেছে, ১৭ ফেব্রুয়ারি সাড়ে সকাল ১০টায় ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী। ওই সময় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সচিব, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিবসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীরা জানান, প্রথমে মন্ত্রী ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন, সে সময় ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করেন সাংবাদিকরা। পরে একজন গণমাধ্যমকর্মী ফুটেজ পাননি উল্লেখ করে মন্ত্রীর কাছে পুনরায় ভিডিও নেয়ার জন্য আরেকবার ভ্যাকসিন দেয়ার চিত্র ধারণের সুযোগ চেয়ে অনুরোধ করেন। এসময় মন্ত্রী পুনরায় সাংবাদিকের সুবিধার্থে বসে ভ্যাকসিন নেয়ার ফুটেজ নিতে সহায়তা করেন।

সেসময় টিকা নেয়ার পর অনুভূতি জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, খুবই স্বাভাবিক, মনেই হয়নি যে টিকা নিলাম। বুঝতেই পারিনি কখন টিকা পুশ করেছে। কোনো রকম খারাপ কিছু মনে হওয়া বা ব্যথা পাওয়া এমন কিছুই নয়। অত্যন্ত সুন্দরভাবে টিকা দিয়েছে। আমার ভ্যাকসিন নেয়ার তারিখ আগে ছিল, জ্বরের কারণে আমি প্রথমদিন টিকা নিতে পারিনি। পরে আবার রেজিস্ট্রেশন ট্রান্সফার করে আজ টিকা নিয়ে নিলাম।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মন্ত্রী ভ্যাকসিন নিচ্ছেন না- এমন একটি ভুয়া ভিডিও আজ শনিবার ভাইরাল হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি নিয়ে জানতে চাইলে আ ক ম মোজাম্মেল হক গণমাধ্যমকে বলেন, ১৭ তারিখে (১৭ ফেব্রুয়ারি) আমি ভ্যাকসিন নিয়েছি। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর সচিবের সঙ্গে আমরা যখন বাইরের দিকে যাচ্ছি, ওই সময় একটি চ্যানেলের সাংবাদিক এসে বলেন, তারা ফুটেজ পাননি। ওই সাংবাদিক অনুরোধ করেন, আমি যেন আবার একটু ভ্যাকসিন নেওয়ার ডেমো করি। মূলত তার অনুরোধেই আবার একটু ভ্যাকসিন নেওয়ার ডেমো করতে হয়েছে।

আ ক ম মোজাম্মেল হক আরও বলেন, আমার ভ্যাকসিন নেওয়ার ফুটেজ বিটিভির কাছে রয়েছে। কেউ যদি চ্যালেঞ্জ করতে চায় যে আমি ভ্যাকসিন নিইনি, আমি ওই ফুটেজ দেখাতে পারব।

এর আগে, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সংসদ সচিবালয় ক্লিনিকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও সচিব তপন কান্তি ঘোষ ভ্যাকসিন নিয়েছেন বলে জানিয়েছিল মন্ত্রণালয়। সব গণমাধ্যমেই সে খবর প্রকাশ পেয়েছিল।

তবে শনিবার ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ ও স্বাস্থ্য সচিব মো. আব্দুল মান্নানের সঙ্গে সংসদ সচিবালয় ক্লিনিকের কোভিড ভ্যাকসিন প্রয়োগ কেন্দ্রের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন আ ক ম মোজাম্মেল হক। কিছুক্ষণ পর তারা একটি রুমে প্রবেশ করেন। এসময় মন্ত্রী চেয়ারে বসলে একজন নার্স একটি সিরিঞ্জ নিয়ে তার বাম হাতে ভ্যাকসিন প্রয়োগের অভিনয় করেন। এসময় হাসিমুখে চেয়ারে বসেছিলেন মন্ত্রী। পরে বের হয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলছেন, এই অভিনয়টুকু করলেও এর আগেই ভ্যাকসিন নিয়েছেন তিনি। গণমাধ্যমের অনুরোধ ফেলতে না পেরেই তিনি এই অভিনয় করেছেন।

যোগাযোগ করলে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষও জানান, মন্ত্রী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। তিনি বলেন, সেদিন আমরা দুজনেই ভ্যাকসিন নিয়েছি। মন্ত্রী আমার আগেই ভ্যাকসিন নিয়েছেন। উনি নেওয়ার পর আমি নিয়েছি।


আরও খবর



সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার মধ্য দিয়ে লেনদেন চলছে

প্রকাশিত:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবস বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার মধ্য দিয়ে লেনদেন চলছে।

বুধবার লেনদেন শুরুর আধা ঘণ্টা পর অর্থাৎ সকাল সাড়ে ১০টায় ডিএসইর সাধারণ সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৪৮ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ৩০৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। ডিএসই শরীয়াহ্ সূচক ১২ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৫ পয়েন্ট বেড়ে যথাক্রমে ১৫৯৯ ও ২৭০১ পয়েন্টে রয়েছে। এই সময়ের মধ্যে লেনদেন হয়েছে ২৮৬ কোটি ৯১ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

বুধবার এ সময়ে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ২৫৪টির, কমেছে ৫৫টির এবং অপরির্বতিত রয়েছে ৪৭টি কোম্পানির শেয়ার।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত লেনদেনের শীর্ষে থাকা ১০ কোম্পানি হলো- অরিয়ন ফার্মা, প্যাসিফিক ডেনিম, বেক্সিমকো লিমিটেড, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, ম্যাকসন স্পিনিং বেক্সিমকো ফার্মা, কেপিসিএল, বিবিএস ক্যাবলস, লাফাজহোলসিম ও আলিফ ইন্স্যুরেন্স।

এর আগে আজ লেনদেন শুরুর প্রথম ৫ মিনিটে ডিএসইর সূচক বাড়ে ৩২ পয়েন্ট। সকাল ১০টা ১০ মিনিটে সূচক আগের অবস্থান থেকে ১ পয়েন্ট কমে যায়। এরপর সূচকের গতি ঊর্ধ্বমুখী দেখা যায়। সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে সূচক আগের দিনের চেয়ে ৩১ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ২৮৯ পয়েন্টে অবস্থান করে।


আরও খবর
সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে সবজির

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

পুঁজিবাজারে সূচকের মিশ্র প্রবণতা

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




স্বামী কী করতেন খবর রাখতেন না শিল্পা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজ কুন্দ্রার নামে ১৪০০ পাতার চার্জশিট পেশ করেছে মুম্বই পুলিশের অপরাধ দমন শাখা। আর তারই একটি অংশে শিল্পার বয়ান লেখা হয়েছে। জানা গিয়েছে, এই মামলায় শিল্পার নাম অন্তর্ভুক্ত সাক্ষী হিসেবে। সেই চার্জশিটেই রাজের শ্যালক প্রদীপ বক্সীর নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

চার্জশিটের দাবি, শিল্পা মুম্বই পুলিশকে জানিয়েছেন, রাজের অ্যাপ হটশটস এবং বলিফেম সম্পর্কে তাঁর কাছে কোনও তথ্য ছিল না। পুলিশের খবর, পর্ন বানিয়ে এই দুটি অ্যাপের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিতেন রাজ। গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপেল অ্যাপ স্টোর থেকে হটশটস বাতিল করে দেওয়ার পর বলিফেম তৈরি করা হয়েছিল।

চার্জশিট অনুযায়ী, শিল্পার বক্তব্য, কাজের চাপে এমনই ব্যস্ত ছিলাম যে রাজ কী করছে সে সব খবর রাখতাম না। শিল্পা ছাড়া রাজের আরও কয়েক জন কর্মী তাঁর বিরুদ্ধে বয়ান দিয়েছেন পুলিশের কাছে।


আরও খবর
আক্রমণাত্মক মন্তব্যের শিকার নুসরাত

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




শেষটা সুখকর হলো না বাংলাদেশের

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বড় লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দ্রুত উইকেট হারায় বাংলাদেশ। টপঅর্ডাররা দায়িত্ব নিতে পারেননি। তবে দলের হার এড়ানোর চেষ্টা করেও পারেননি আফিফ হোসেন। শেষ পর্যন্ত ১৩৪ রানে ইনিংস গুটিয়ে নেয় বাংলাদেশ। তাই ২৭ রানে হারে লাল-সবুজের দল। তবে এই ম্যাচে হারলেও সিরিজ ৩-২ ব্যবধানে জিতেছে মাহমুদউল্লাহরা।

অবশ্য শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। দুই ওপেনার লিটন দাস ও মোহাম্মদ নাঈমের ব্যাটে মন্থরগতিতে শুরু হয় স্বাগতিকদের। এর পর পঞ্চম ওভারে হতাশ করে ফিরে যান লিটন দাস। ধারাবাহিক ব্যর্থ হওয়া লিটন ১২ বলে ১০ রান করে ফেরেন। দলীয় ২৬ রানে প্রথম উইকেট হারায় লাল-সবুজের দল।

লিটনের পর দায়িত্ব নিতে পারেননি নাঈমও। তিনি ফেরেন ২৩ রানে। এরপর বিদায় নেন সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহিম।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৬১ রান করে নিউজিল্যান্ড। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেছেন অধিনায়ক টম ল্যাথাম। গত ১০ ম্যাচে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এটিই সর্বোচ্চ সংগ্রহ।

সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতেও টস ভাগ্য ছিল কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথামের পক্ষে। আগের চার ম্যাচেই ব্যর্থ ছিল নিউজিল্যান্ডের ওপেনিং জুটি। গত ম্যাচগুলোতে শুরুর জুটিতে যথাক্রমে ১, ১৬, ১৬, ০ রান পেয়েছিল কিউইরা।

সেই নিউজিল্যান্ডই আজ পেয়েছে দারুণ সূচনা। ইনিংসে প্রথম পাঁচ ওভারেই দলীয় স্কোর পঞ্চাশ ছাড়ায়  নিউজিল্যান্ড। তবে নিউজিল্যান্ডের শুরুর ছন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেননি শরিফুল ইসলাম। ষষ্ঠ ওভারে বল হাতে এসেই জোড়া উইকেট তুলে নেন তিনি।

সে ওভারে রাচিন রবীন্দ্রকে ফিরিয়ে উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন শরিফুল। তরুণ এই পেসারের বলে পুল শট খেলতে চেয়েছেন রবীন্দ্র। কিন্তু টাইমিং ঠিক হয়নি। ব্যাটের ওপরের দিকে লেগে বল যায় মিড অফে। সেখান থাকা মুশফিকুর রহিম ঝাঁপিয়ে পড়ে ক্যাচ লুফে নেন। ১২ বলে ১৭ রান করে ফেরেন রবীন্দ্র।

একই ওভারে ফিন অ্যালানকেও বিদায় করেন শরিফুল। রিভিউতে বেঁচে যাওয়া অ্যালানকে বোল্ড করেন শরিফুল। পাওয়ার প্লের শেষ বলে আউট হয়ে ২৪ বলে ৪১ রান করে ফেরেন অ্যালান। দলীয় ৫৮ রানেই জোড়া উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড।

মিডল অর্ডারে নামা দুই কিউই ব্যাটসম্যান উইল ইয়ং ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে স্থায়ী হতে দেননি আফিফ হোসেন ও নাসুম আহমেদ। চলতি সিরিজে প্রথমবার বল হাতে এসেই ইয়ংকে নিজের শিকার বানান আফিফ। রাউন্ড দ্য উইকেটে গিয়ে বল করে ইয়ংকে ফেরান তিনি। ছয় রানে সাজঘরে ফেরেন ইয়ং।

১১তম ওভারে হাতখুলে খেলার আগেই দি গ্র্যান্ডহোমকে থামান নাসুম। তরুণ এই স্পিনারের মিডল স্টামে পিচ করা ফুল লেংথের বলে ছক্কা হাঁকাতে চেয়েছেন গ্র্যান্ডহোম। বল চলে যায় লং অফে। সেখানে দৌড়ে গিয়ে ক্যাচ মুঠোয় জমান শামীম হোসেন। ৯ রানে থামেন দি গ্র্যান্ডহোম।

দারুণ শুরুর পর দ্রুত চার উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে যায় নিউজিল্যান্ড। হেনরি নিকোলসকে নিয়ে সেখান থেকে দলকে উদ্ধার করেন অধিনায়ক টম ল্যাথাম। উইকেট হারানোর চাপ সামলে হাত খুলে খেলেন অধিনায়ক। ল্যাথামের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে শেষ পর্যন্ত ১৬১ রান গড়ে নিউজিল্যান্ড। ৫০ রান করে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

বল হাতে বাংলাদেশের হয়ে ৪৮ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম। একটি করে উইকেট পান আফিফ, নাসুম ও তাসকিন আহমেদ।


আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের দুই কোটি মানুষ বাস্তুচ্যুত হতে পারে : জাতিসংঘ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির ফলে ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় ১৭ শতাংশ এলাকা পানিতে তলিয়ে যেতে পারে। এর ফলে দেশের দুই কোটি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচেলেট মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) কাউন্সিলের ৪৮তম অধিবেশনে একটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এ তথ্য তুলে ধরেন।

মিশেল ব্যাচেলেট জানান, মালদ্বীপের ৮০ শতাংশের বেশি স্থলভাগের অবস্থান সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে মাত্র এক মিটারের কম। এর মধ্যেই দেশটি মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে, যা সমুদ্রের মাত্রা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আরও খারাপ হবে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০৫০ সালের মধ্যে ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড এবং ভিয়েতনামসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বেশির ভাগ অঞ্চলে দৈনিক উচ্চ জোয়ারের জেরে বন্যা হতে পারে। এ ছাড়া সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির ফলে ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় ১৭ শতাংশ এলাকা পানিতে তলিয়ে যেতে পারে। এর ফলে দেশের দুই কোটি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

পরিবেশগত দুর্যোগের কারণে বাস্তুচ্যুত হওয়া এশিয়ার একটি গুরুতর ঘটনা। প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৯ সালে চীন, বাংলাদেশ, ভারত এবং ফিলিপাইনে অন্যান্য দেশের তুলনায় দুর্যোগের কারণে বাস্তুচ্যুতির ঘটনা বেশি ঘটেছে, যা বিশ্বের মোট ৭০ শতাংশ।


আরও খবর



নারীদের বিক্ষোভ মিছিলে তালেবানের হামলা

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অধিকারের দাবিতে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে নারীদের এক বিক্ষোভ মিছিলে হামলা চালিয়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে তালেবান।

বিক্ষোভকারীরা বলছেন, তারা একটি সেতু থেকে হেঁটে প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেসের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাদের লক্ষ্য করে কাঁদানে গ্যাস এবং পিপার স্প্রে ছোড়া হয়।

কাবুল ও হেরাতে নারীদের কয়েকটি বিক্ষোভের মধ্যে এটি সর্বশেষ সমাবেশ। নারীরা বাইরে কাজ করার অধিকার এবং সরকারে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার দাবি জানিয়েছে এই বিক্ষোভে।

তালেবান বলেছে, নারীরা আফগানিস্তানের নতুন সরকারে যোগ দিতে পারবে, কিন্তু মন্ত্রীর পদে থাকতে পারবে না।

অনেক নারী ভয় পাচ্ছেন, ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে তালেবান ক্ষমতায় থাকার সময়ে নারীদের সঙ্গে যে আচরণ করা হয়েছিল, সেই একই আচরণ আবারও করা হবে কিনা। নারীদের বাইরে বের হতে হলে মুখ ঢেকে রাখতে হতো এবং ছোটখাটো অপরাধের জন্যও কঠোর শাস্তি দেওয়া হতো।


আরও খবর