আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

ভরা মৌসুমেও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সবজি

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সপ্তাহের ব্যবধানে মুরগির দাম কমলেও ভরা মৌসুমেও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি। বাজারে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে ১০ টাকা কমেছে। তবে বেড়েছে শসা, ফুলকপি ও শিমসহ বেশ কিছু পণ্যের দাম।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছ।

বাজারে ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি করছেন ১৭০ থেকে ১৭৫ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ১৮০ থেকে ১৮৫ টাকা। আর দুই সপ্তাহ আগে ছিল ১৯৫ থেকে ২০০ টাকা।

কমেছে সোনালি ও লাল লেয়ার মুরগি দামও। সোনালি মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৪০ থেকে ২৬০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ২৬০ থেকে ২৮০ টাকা। আর দুই সপ্তাহ আগে ছিল ৩০০ থেকে ৩৪০ টাকা। গত সপ্তাহে ২৪০ থেকে ২৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া লাল লেয়ার মুরগি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৩০ থেকে ২৪০ টাকা।

সরবরাহ বাড়াতে মুরগির দাম কমেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবাসয়ীরা। সামনে মুরগির দাম আরও কমবে।

এদিকে সবজির বাজারে সপ্তাহের ব্যবধানে শসার দাম বেড়ে প্রায় তিনগুণ হয়েছে। শসার কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা। গত সপ্তাহে যা ছিল ২৫ থেকে ৩০ টাকা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরবরাহ কমে যাওয়ায় শসার দাম বেড়েছে। তবে শসার এই দাম বেশি দিন থাকবে না। অল্প সময়ের মধ্যেই শসার দাম কমে যাবে।

শসার পাশাপাশি বেড়েছে ফুলকপির দামও। গত সপ্তাহে ৩০ থেকে ৪০ টাকা পিস বিক্রি হওয়া ফুলকপির দাম বেড়ে ৪০ থেকে ৬০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। শিম বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০ থেকে ৬০ টাকার মধ্যে। তবে সপ্তাহের ব্যবধানে দাম অপরিবর্তিত রয়েছে পাকা টমেটো, গাজর, মুলা ও শালগমসহ অন্যান্য সবজির।

 

নিউজ ট্যাগ: আজকের বাজার দর

আরও খবর
বাজারে বেশির ভাগ সবজির দাম কমেছে

শুক্রবার ১৭ ডিসেম্বর ২০২১




চবিতে অনির্দিষ্টকাল সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) অনির্দিষ্টকাল সব ধরনের সভা-সমাবেশ ও জনসমাগম নিষিদ্ধ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি চট্টগ্রামসহ দেশব্যাপী করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও তৎসংলগ্ন পার্শ্ববর্তী এলাকাসমূহেও এ ভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং তাদের পরিবার-পরিজনদের সুরক্ষার স্বার্থে আগামী ১৮ জানুয়ারি হতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের পূর্বানুমতি ব্যতিরেকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কোনো র‍্যালি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, শিক্ষাসমাপনী অনুষ্ঠান এবং জনসমাগম হয়, এরূপ অন্য কোনো অনুষ্ঠান আয়োজনের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, দাপ্তরিক প্রয়োজন ব্যতিত এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয়, এমন ব্যক্তিদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ক্লাস, পরীক্ষা ও দাপ্তরিক কার্যক্রম যথারীতি চলমান থাকবে। শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সবাইকে মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে বলা হয়েছে।


আরও খবর



১৫ জানুয়ারির পর টিকা ছাড়া স্কুলে যাওয়া যাবে না

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

১২ বছরের বেশি বয়সি শিক্ষার্থীদের টিকা গ্রহণ না করলে শ্রেণি কার্যক্রম তথা স্কুল-কলেজে না যাওয়ার লিখিত নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। শনিবার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা পাঠিয়েছে। এতে নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত ১২-১৮ বছর বয়সী সব শিক্ষার্থীর টিকা গ্রহণ নিশ্চিত করতে বলা হয়।

মাউশির নির্দেশনায় বলা হয়, ১২-১৮ বছর বয়সী সব শিক্ষার্থীকে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে ভ্যাকসিন দেওয়ার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে গত ৩০ ডিসেম্বর বিভিন্ন নির্দেশনা দেওয়া হয়। রাষ্ট্রের এ গুরুত্বপূর্ণ ও অগ্রাধিকার কর্মসূচির সফল বাস্তবায়নে নতুন করে নির্দেশনা দেওয়া হলো।  

আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে প্রায় সব শিক্ষার্থীর টিকাদান কার্যক্রম শেষ হবে এবং এরপর থেকেই টিকা না নেওয়া শিক্ষার্থীরা শ্রেণি কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন না বলে জানা গেছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছিলেন, ১২ বছরের বেশি বয়সি শিক্ষার্থীদের টিকা নিয়েই স্কুলে যেতে হবে। করোনাভাইরাসের টিকার অন্তত এক ডোজ নেওয়া না থাকলে তাদের স্কুলে যেতে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি নিয়ে সরকার জোরালোভাবে ভাবছে।


আরও খবর



আসছে মোশারফ করিমের ‘গু কাকু- দ্য পটি আঙ্কল’

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২ | ২৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবাক হয়ে যাচ্ছেন? ভাবছেন এ কেমন কাকু? তবে পুরো বিষয়টা খোলসা করে বলা যাক। এ কাকু আসলে কাল্পনিক। আর এই কাকুকে কেন্দ্র করেই আস্ত একটি ছবি বানিয়ে ফেলেছেন মণীশ বসু। নাম গু কাকু- দ্য পটি আঙ্কলভূতের ভবিষ্যৎ-এর দশ বছর পূর্তি উপলক্ষে এই ছবি প্রযোজনা করছে মোজো প্রোডাকশনস।

ফেব্রুয়ারি মাসে শুরু হতে চলেছে ছবির শ্যুট। অভিনয় করবেন মোশারফ করিম। তাঁর সঙ্গেই রয়েছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী, পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়, তনুশ্রী চক্রবর্তী, সুস্মিতা চট্টোপাধ্যায়, অপরাজিতা ঘোষ এবং মিশকা হালিমের মতো তারকারা।

গু কাকুর পটভূমিকা নব্বইয়ের দশকের একটি মফস্বলি অঞ্চল। পরিচালকের কথায়, একজন ব্রাত্য, প্রান্তিক মানুষ কী ভাবে একটি গোটা জনগোষ্ঠীর জীবনকে তীব্র ভাবে প্রভাবিত করে ও শেষমেশ সেই অঞ্চলের অধিবাসীদের জন্য হ্যামলিনের বাঁশিওয়ালা হয়ে ওঠে, সে গল্পই উঠে আসে এই ছবিতে।

প্রযোজক জয় বি গঙ্গোপাধ্যায় মনে করেন, মণীশের এই সোশ্যাল স্যাটায়ার এই অতিমারির সময়ও প্রাসঙ্গিক। তবে গু কাকু-র ভূমিকায় কে অভিনয় করছেন, সে বিষয়ে এখনও মুখ খুলতে নারাজ নির্মাতারা।


আরও খবর



নানাবাড়িতে কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | ১১৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলায় নানাবাড়িতে এক কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয়রা।

শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার দাওগাঁও ইউনিয়নের চন্দনীআটা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় বিকালে মুক্তাগাছা থানায় ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে মামলা করেন।

গ্রেফতার হাফিজুল (২৫) চন্দনীআটা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে ও পার্শ্ববর্তী ফুলবাড়িয়া উপজেলার বৈলাজান গ্রামের আবু হানিফার ছেলে দুলাল (৫০)।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী কিশোরী মুক্তাগাছা উপজেলার চন্দনীআটা গ্রামে নানাবাড়িতে বসবাস করে আসছিল। আত্মীয়তার সুবাদে একই গ্রামের হাফিজুল ও ফুলবাড়িয়া উপজেলার বৈলাজান গ্রামের বাসিন্দা দুলাল প্রায়ই ভুক্তভোগীর নানাবাড়ি যাতায়াত করত। সেই সুযোগে দুজন মিলে প্রায়ই মেয়েটিকে ধর্ষণ করে আসছিল।

একপর্যায়ে ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এতে ভুক্তভোগী কিশোরীর পরিবার ও এলাকায় ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়লে লোকজন অভিযুক্ত ওই দুজনকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

মুক্তাগাছা থানার ওসি মাহমুদুল হাসান জানান, ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন। এ ঘটনায় আমরা মূল আসামি দুজনকে গ্রেফতার করেছি। রোববার আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর ভুক্তভোগী কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়।


আরও খবর



কুয়াশায় দৃষ্টিসীমা আটকে যায় হিলির জনপদে

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

উত্তরের জনপদ দিনাজপুর। হিমালয়ের পাদদেশে হওয়ার কারণে শীত একটু বেশিই অনুভূতি হয়। গত কয়েক দিন ধরে এই জেলায় তাপমাত্রা একটু বেড়ে গেছে। তবে ঘন কুয়াশার চাদরে ঢেকে গেছে হিলির জনপদ।

এদিকে স্বাভাবিক আবহাওয়া উধাও। রাস্তাঘাট, সড়ক মহাসড়ক চোখ মেললে দৃষ্টিসীমা কুয়াশায় আটকে যায়। এতে করে উত্তর-পশ্চিম দিকের হিমেল কনকনে হাওয়া কাঁপন তুলছে সাধারণ মানুষের মাঝে।

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন জানান, সোমবার (১০ জানুয়ারি) দিনাজপুরে ভোর ৬টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বাতাসের আর্দ্রতা ৯৪ শতাংশ, বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ৩ থেকে ৪ কিলোমিটার। তবে বেলা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এটি ঘণ্টায় ৬ থেকে ৮ কিলোমিটার পর্যন্ত উন্নত হতে পারে।

নিউজ ট্যাগ: ঘন কুয়াশা

আরও খবর
চার জেলায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22