আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

ভয়ঙ্কর করোনা : ঢাকাসহ ২ জেলা রেড জোন, ঝুঁকিতে ৬ জেলা

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস সংক্রমণের রেড জোন ঘোষণা করা হয়েছে ঢাকা ও রাঙামাটি জেলাকে। এছাড়াও মধ্যম পর্যায়ের ঝুঁকিতে রাখা হয়েছে যশোরসহ সীমান্তবর্তী ৬ জেলাকে। আজ বুধবার (১২ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা ড্যাশবোর্ড ওয়েবসাইট থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

ঝুঁকিতে থাকা জেলাগুলো হলো- রাজশাহী, রংপুর, নাটোর, লালমনিরহাট, দিনাজপুর, যশোর। এসব জেলায় করোনা সংক্রমণের হার ৫ শতাংশ থেকে ৯ শতাংশে অবস্থান করছে। আর রেড জোনে থাকা দুই জেলায় করোনা সংক্রমণের হার ১০ শতাংশ থেকে ১৯ শতাংশ।


আরও খবর



অধিনায়ক না থাকলেও কোহলীই আমাদের দলের নেতা : বুমরা

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ২৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিরাট কোহলী টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ার তাঁরা অবাক হয়েছিলেন। কিন্তু দলের প্রত্যেকে কোহলীর এই সিদ্ধান্তকে শ্রদ্ধা করেন। এক দিনের সিরিজের আগে সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত হয়ে সোমবার বললেন যশপ্রীত বুমরা।

বুমরা বলেছেন, দেখুন, বিরাট কেন টেস্ট অধিনায়কত্ব ছেড়েছে সেটা বলার জন্য তো এখানে আসিনি। এটা ওর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। আমরা শ্রদ্ধা করি। ওর শরীর এবং মনের ব্যাপারে ও-ই সব থেকে ভাল জানে। তবে বিরাটের অধীনে খেলতে পেরে আমি গর্বিত। টেস্টে অভিষেক হয়েছিল ওর অধীনেই। দলের মধ্যে আলাদা শক্তি নিয়ে আসে ও। বরাবরই আমাদের দলের নেতা থাকবে এবং আশা করি ভবিষ্যতেও এ ভাবেই অবদান রেখে যাবে।

কখন কোহলী অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানান সেই প্রসঙ্গে বুমরা বলেছেন, কেপ টাউনে হারের পর টিম মিটিংয়েই কোহলী আমাদের জানিয়ে দেয় যে, ও টেস্ট অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছে। ওর নেতৃত্বকে আমরা সম্মান করি। দলের নেতা হিসাবে যা অর্জন করেছে তার জন্য ওকে আমরা অভিনন্দন জানিয়েছি। বুমরা আরও বলেন, অধিনায়ক না হলেও বিরাট আমাদের দলের নেতা থাকবে। ওর মতো শক্তি ভারতীয় দলে প্রায় কারওর নেই। ভারতীয় ক্রিকেটে একটা বদল নিয়ে এসেছে ও। প্রত্যেকে এখন অনেক বেশি ফিট। আমাদের দলে ও-ই অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার। খেলার প্রতি ওর জ্ঞান বরাবর দলের কাজে লাগবে।

তবে বুমরা এটাও স্পষ্ট জানিয়েছেন, নেতৃত্বের এই বদল সম্ভবত দলের পারফরম্যান্সে কোনও প্রভাব ফেলবে না। বুমরার কথায়, সবার কথা বলতে পারব না। তবে আমার কাছে এই ঘটনা কোনও প্রভাব ফেলবে না। আমরা প্রত্যেকে একে অপরকে কোনও না কোনও উপায়ে সাহায্য করার জন্য তৈরি। আমরা জানি যে প্রক্রিয়া মেনে এগোচ্ছি তাতে পরিবর্তন আসবেই। তাই আমার মনে হয় না বিরাট চলে যাওয়ায় কেউ কোনও সমস্যায় পড়বে।

তিনি নিজে কখনও দলের অধিনায়ক হওয়ার ইচ্ছে পোষণ করেন? বুমরা জানালেন, দলকে নেতৃত্ব দিতে কোনও সমস্যা নেই তাঁর। বলেছেন, দলকে যে ভাবে পারি সাহায্য করতে চাই। যদি কোনওদিন নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ আসে তা হলে অবশ্যই সেটা নিয়ে ভাবব। কিন্তু নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য কখনও ধাওয়া করব না। আমি নিজের কাজটা করতেই বেশি ভালোবাসি। তার জন্য আমাকে অধিনায়ক করতেই হবে এমন কোনও ব্যাপার নেই। দলের জয়ে অবদান রাখার থেকে বড় আমার কাছে কিছু নেই।

নিউজ ট্যাগ: বিরাট কোহলী

আরও খবর



‘সরকারি কর্মচারীদের আচরণে যেন সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন না হয়’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, সরকারের কর্মচারীদের মূল দায়িত্ব দেশ ও জনগণের সেবা করা। তাই জনগণের সেবায় তাদেরকে আত্মনিয়োগ করতে হবে।  সরকারি কর্মচারীদের আচরণে যেন সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন না হয়।

বৃহস্পতিবার জাতীয় পরিকল্পনা ও উন্নয়ন একাডেমি আয়োজিত ডেভেলপমেন্ট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ট্রেনিং কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকারি দপ্তর ও কর্মচারীদের প্রতি জনগণের প্রত্যাশা অনেক। তারা বিভিন্ন সমস্যায় সরকারি দপ্তরে আসে। জনগণের সেই সব সমস্যা সমাধানে সরকারি কর্মচারীদের আন্তরিক হতে হবে। তাদেরকে সাধারন জনগণের সমস্যাগুলো অনুধাবন করে যথাযথ সেবা দিতে হবে।

তিনি বলেন, সরকারের ভাবমূর্তি উন্নয়নে সরকারি কর্মচারীদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই সরকারি কর্মচারীদের আচরণে যেন সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে কাজ করতে হবে।

জাতীয় পরিকল্পনা ও উন্নয়ন একাডেমির মহাপরিচালক বদরুল আরেফিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জনপ্রশাসন সচিব কে এম আলী আজম এবং থাইল্যান্ডের এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির পরিচালক ভোরাভেট কনলাসিন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন।

প্রশাসন ক্যাডারের ৩৭ ব্যাচের ৫০ জন কর্মকর্তা ৪ মাসব্যাপী এই প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশ নেবেন। বাংলাদেশের জাতীয় পরিকল্পনা ও উন্নয়ন একাডেমি এবং থাইল্যান্ডের এশিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি যৌথভাবে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করেছে।



আরও খবর



নাইকো মামলায় খালেদার অভিযোগ গঠনের শুনানি ৮ মার্চ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | ২৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য ১৮ জানুয়ারি দিন ধার্য করেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবী জিয়া উদ্দিন জিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন

আলোচিত নাইকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য আগামী ৮ মার্চ দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে অবস্থিত ঢাকার ৯ নম্বর (অস্থায়ী) বিশেষ জজ শেখ হাফিজুর রহমান এই দিন ধার্য করেন।

এদিন খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি। এজন্য তার পক্ষে আইনজীবী অভিযোগ গঠন শুনানি পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন। আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য ১৮ জানুয়ারি দিন ধার্য করেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবী জিয়া উদ্দিন জিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, কানাডিয়ান প্রতিষ্ঠান নাইকোর সঙ্গে অস্বচ্ছ চুক্তির মাধ্যমে রাষ্ট্রের আর্থিক ক্ষতিসাধন ও দুর্নীতির অভিযোগে ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ মাহবুবুল আলম তেজগাঁও থানায় খালেদা জিয়াসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলাটি করেন।

২০১৮ সালের ৫ মে খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। এতে তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকা আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়।

মামলার আসামিরা হলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ (প্রয়াত), সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন (প্রয়াত), সেসময়ের প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সচিব খন্দকার শহীদুল ইসলাম, সাবেক সিনিয়র সহকারী সচিব সি এম ইউছুফ হোসাইন, বাপেক্সের সাবেক মহাব্যবস্থাপক মীর ময়নুল হক, বাপেক্সের সাবেক সচিব মো. শফিউর রহমান, ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন আল মামুন, বাগেরহাটের সাবেক সংসদ সদস্য এম এ এইচ সেলিম ও নাইকোর দক্ষিণ এশিয়া-বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট কাশেম শরীফ।

নিউজ ট্যাগ: খালেদা জিয়া

আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




নতুন বিধিনিষেধে যেভাবে চলবে ট্রেন, জানালেন রেলমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ মোকাবিলায় ট্রেনে অর্ধেক যাত্রী পরিবহন শুরু হবে। কবে থেকে এ নিয়ম কার্যকর হবে তা এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে তা নির্ধারণ করে শিগগিরই জানিয়ে দেওয়া হবে। মঙ্গলবার রেল ভবনে এক চুক্তি সই অনুষ্ঠানে এসব কথা জানান রেলমন্ত্রী।

রেলে কবে থেকে ৫০ শতাংশ যাত্রী পরিবহন শুরু হবে সে বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, আমরা বিষয়টি নিয়ে বৈঠক করে শিগগিরই আপনাদের জানাব।

তিনি আরও বলেন, রেলে ১৩ জানুয়ারির অগ্রিম টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। ওই দিন থেকে ৫০ শতাংশ যাত্রী বহন করা সম্ভব হবে না।

পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপে বন্দর নগরীর চট্টগ্রাম স্টেশনের কাছে রেলওয়ের জমিতে শপিং মল, হোটেল কাম রেস্ট হাউস এবং অন্যান্য অবকাঠামো নির্মাণের জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ে মঙ্গলবার একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করে। রেলওয়ের পক্ষে আহসান জাবের এবং এপিক প্রপার্টিজ লিমিটেডের পরিচালক আনোয়ার হোসেন এই চুক্তিতে সই করেন।

এর আগে করোনা সংক্রমণ মোকাবেলায় আগামী বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে সারাদেশে ১১ দফা বিধি-নিষেধ কার্যকর করতে যাচ্ছে সরকার। গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপন অনুসারে, করোনা আক্রান্তের হার ক্রমবর্ধমান হওয়ায় উন্মুক্ত স্থানে সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও সমাবেশ পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখতে হবে। একই সঙ্গে দোকান, শপিংমল ও বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতা এবং হোটেল-রেস্তোরাঁসহ সব জনসমাগমস্থলে বাধ্যতামূলকভাবে সবাইকে মাস্ক পরিধান করতে হবে, অন্যথায় আইনানুগ শাস্তির সম্মুখীন হতে হবে বলেও জানানো হয়।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



ইভ্যালির কোনো সম্পত্তি অডিট ছাড়া বিক্রি না করার অনুরোধ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | ২৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিরীক্ষা বা অডিট না হওয়া পর্যন্ত ইভ্যালির কোনো সম্পত্তি বিক্রি না করতে পর্ষদকে অনুরোধ করেছেন প্রতিষ্ঠানটির মার্চেন্ট, গ্রাহকদের একাংশ। পাশাপাশি হাইকোর্ট গঠিত ইভ্যালির পরিচালনা পর্ষদে নিজেদের একজন প্রতিনিধি রাখার দাবি জানিয়েছে তারা।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) ইভ্যালি ফ্যানস ক্লাব ও ইভ্যালি আন্দোলনের প্রতিনিধিরা এ দাবি সম্বলিত চিঠি হাইকোর্ট নিযুক্ত বোর্ড কমিটির এমডি মাহবুব কবির মিলনকে দেন।

চিঠিতে বলা হয়, ইভ্যালির স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ থাকায় মার্চেন্টের ব্যবসা বন্ধ। ফলে তারা ব্যাংকঋণ এবং সাপ্লাইয়ের ক্রেডিটের জন্য অমানবিক জীবনযাপন করছেন। ভোক্তারা তাদের ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তাই ওই কমিটির কাঙ্ক্ষিত কাজে সহায়ক হতে পরিচালনা কমিটিতে মার্চেন্ট এবং ভোক্তাদের কমপক্ষে একজন প্রতিনিধি থাকা প্রয়োজন।

এতে আরও বলা হয়, ইভ্যালির নিরীক্ষা সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত স্থাবর-অস্থাবর সব সম্পত্তি বিক্রি বা অন্যত্র হস্তান্তর থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

ইভ্যালি আন্দোলন সমন্বয়ক মো. নাসির উদ্দিন স্বাক্ষরিত চিঠি হাইকোর্ট নিযুক্ত বোর্ড কমিটির এমডি মাহবুব কবির মিলন গ্রহণ করেন। চিঠি হস্তান্তর করেন আন্দোলন কো-সমন্বয়ক সাকিব হাসান ও ইভ্যালি ফ্যানস ক্লাবের অ্যাডমিন মোফতাছিম বিল্লাহ নাহিদ। চিঠি গ্রহণ করে মাহবুব কবির মিলন জানান, পরবর্তী বোর্ড মিটিংয়ে এই চিঠি নিয়ে আলোচনা করা হবে। ইভ্যালি ও গ্রাহকদের জন্য ভালো কিছু করবেন বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি।


আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22