আজঃ শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

যে সব খাবার খেলে শান্ত থাকবে মন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বেঁচে থাকার লড়াইয়ে দুশ্চিন্তা কিংবা অ্যাংজাইটির মতো সমস্যা এখন বিশ্বব্যাপী। মনের ভেতর অস্থিরতা কাজ করলে তার প্রভাব শরীরে পড়বেই। এই চাপ নিয়ন্ত্রণে মেডিটেশনের পাশাপাশি কিছু খাবার খেতে হবে। জেনে নিন সেসব খাবার সম্পর্কে-

অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ খাবার :

সাইট্রাস এবং বেরি জাতীয় খাবারে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট থাকে। মন থেকে অস্থিরতা তাড়িয়ে মন শান্ত করতে খেতে পারেন এ জাতীয় খাবার। সেইসঙ্গে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার রাখুন তালিকায়। পাশাপাশি ভিটামিন ই সমৃদ্ধ খাবার, যেমন- কুমড়ো, তরমুজ এবং ফ্ল্যাক্স সিড ইত্যাদি খেতে পারেন। এসব খাবার মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়ায়, কমায় বিভিন্ন ধরনের দুশ্চিন্তা।

ডার্ক চকলেট ও হলুদ দুধ :

চকলেট খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষ কমই আছে। কিন্তু সেই চকলেট যেন ডার্ক হয়, সেদিকে খেয়াল রাখবেন। কারণ, এই চকলেট আপনার মন শান্ত করতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি পান করুন হলুদ মিশ্রিত দুধ। দুধে থাকে ভিটামিন ডি এবং হলুদে পাবেন কারকিউমিন। এগুলো হলো অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি। এসবে যেহেতু অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট উপাদান রয়েছে, তাই এগুলো আপনার মস্তিষ্ক শান্ত রাখতে সাহায্য করবে।

ভিটামিন বি সমৃদ্ধ খাবার :

প্রতিদিনের খাবারে সব ধরনের ভিটামিনের উপস্থিতি নিশ্চিত করুন। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, ভিটামিন বি আমাদের স্নায়ুতন্ত্রের ওপর বিশেষ প্রভাব রাখতে পারে। তাই নিয়মিত ভিটামিন বি সমৃদ্ধ খাবার রাখুন তালিকায়। যেমন- মাছ, ডিম এবং বিভিন্ন সবজি খেতে পারেন। এ ধরনের খাবার আপনার অ্যাংজাইটি কমিয়ে দেবে।

প্রোবায়োটিক্স এবং ভালো ফ্যাট :

আমাদের পেটের স্বাস্থ্য ভালো রাখে প্রোবায়োটিক্স। তবে শুধু পেটই নয়, এটি মন শান্ত রাখতেও সাহায্য করে। প্রতিদিন খাবারের তালিকায় প্রোবায়োটিক্স রাখলে বাড়ে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা। তাই আপনার খাবারে প্রোবায়োটিকের পাশাপাশি যোগ করুন ভালো ফ্যাটও। হতে পারে তা ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। বিভিন্ন ধরনের মাছ, ফ্ল্যাক্স সিড, বাদাম ও নারিকেল তেলে পেতে পারেন এই ফ্যাট।

অন্ত্র এবং গাট এর ব্যাকটেরিয়া সেরোটোনিনের মতো হরমোন নিঃসরণ করে। এই হরমোন আমাদের মেজাজের ওপর প্রভাব ফেলে। তাই নিয়মিত প্রোবায়োটিক সমৃদ্ধ খাবার খেলে তা আপনার মস্তিষ্কেও প্রভাব ফেলবে। নিয়মিত টক দই রাখুন পাতে। এটি আপনার মন শান্ত রাখবে।


আরও খবর
আজ আপনার জন্মদিন হলে

রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

আজ প্রথম প্রেম দিবস

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১




টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রথম দুই টি-টোয়েন্টিতে জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে সাত উইকেটের বড় জয় পায় টাইগাররা, দ্বিতীয় ম্যাচে জিতেছে ৪ রানে। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে সিরিজ নিশ্চিতের লড়াই। রবিবার এই ম্যাচে টস হেরে আগে বোলিং করবে বাংলাদেশ।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ৬০ রানে গুঁড়িয়ে দেয় নিউজিল্যান্ডকে। এরপর তুলে নেয় সাত উইকেটের বড় জয়। দ্বিতীয় ম্যাচে বেশ লড়াই হলেও বাংলাদেশ জয় পায় ৪ রানের ব্যবধানে।

তৃতীয় ম্যাচেও আগের দুই ম্যাচের একাদশ নিয়েই মাঠে নামছে বাংলাদেশ। টাইগারদের একাদশ অপরিবর্তিত থাকলেও তিনটি পরিবর্তন আছে নিউজিল্যান্ড দলে। ডগ ব্রেসওয়েল, বেন সিয়ার্স ও হামিশ বেনেট বাদ পড়েছেন একাদশ থেকে। দলে এসেছেন ফিন অ্যালেন, স্কট কুগেলেইন ও জ্যাকব ডাফি।

তৃতীয় ম্যাচে দুই দলের একাদশ-

বাংলাদেশ: লিটন দাস, নাঈম শেখ, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, শেখ মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাসুম আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান

নিউজিল্যান্ড : ফিন অ্যালেন, রাচিন রবীন্দ্র, উইল ইয়ং, টম ল্যাথাম, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, হেনরি নিকোলস, টম ব্লানডেল, কোল ম্যাককঞ্চি, স্কট কুগেলেইন, এজাজ পেটেল, জ্যাকব ডাফি।


আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




ইভানার স্বামীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ২০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর পরীবাগে ইংরেজি মাধ্যম স্কুল স্কলাসটিকার ক্যারিয়ার গাইডেন্স কাউন্সিলর ইভানা লায়লা চৌধুরীর মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানীর শাহবাগ থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ইভানার বাবা এ এস এম আমান উল্লাহ চৌধুরী এ অভিযোগ করেন।

অভিযোগে ইভানার মৃত্যুর ঘটনায় তার স্বামী ব্যারিস্টার আবদুল্লাহ মাহমুদ হাসান রুম্মান, তার প্রেমিকা ব্যারিস্টার সানজানা ইয়াসিন খান ও অধ্যাপক ডা. মুজিবুল হক জড়িত বলে উল্লেখ করা হয়।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মওদুদ হাওলাদার বলেন, নিহত ইভানার পরিবার একটি অভিযোগ করেছেন। সেটি গ্রহণ করা হয়েছে।

থানা সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ইভানার বাবা এ এস এম আমান উল্লাহ চৌধুরী, ইভানার দুলাভাই ও তাদের আইনজীবী ব্যারিস্টার এম সরোয়ার হোসেন শাহবাগ থানায় যান। পরে তার একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

থানায় দেওয়া অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, বিয়ের পর থেকেই ইভানাকে তার স্বামী রুম্মান শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন। কিছুদিন আগে ইভানা জানতে পারেন, রুম্মান ব্যারিস্টার সানজানা ইয়াসিন খানের সঙ্গে পরকীয়া প্রেমে লিপ্ত।

পরে ইভানা তার স্বামী রুম্মান ও সানজানার মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপে প্রেমালাপের প্রমাণও পান এবং তার স্ক্রিনশর্ট নিয়ে বন্ধুদের মেসেঞ্জারে পাঠান। এছাড়া বেশকিছুদিন ধরে রুম্মান ইভানাকে ঘুমের ওষুধ খাওয়াচ্ছিল, যাতে রুম্মান নির্বিঘ্নে সানাজানার সঙ্গে ফোনে প্রেমালাপ করতে পারে বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।


আরও খবর
স্বামী হত্যায় স্ত্রীর যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




প্রাণহানির ঘটনা ছাড়া ভোট সুষ্ঠু হয়েছে : ইসি সচিব

প্রকাশিত:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুজনের প্রাণহানি এবং কিছু পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ছাড়া ১৬০টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

ভোট গ্রহণ শেষে সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমন দাবি করেন ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার।

তিনি বলেন, কিছু প্রার্থী ও সমর্থক খুবই ইমোশনাল হয়ে যান, তাদের কারণে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। মহেশখালীতে দুই পক্ষের মধ্যে সহিংসতা ঘটেছে ও কুতুবদিয়ায় দুষ্কৃতকারীরা ব্যালট ছিনতাই করতে গেছে; আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও প্রিসাইডিং কর্মকর্তারা ব্যবস্থা নিয়েছেন।

তবে দুজন নিহতের ঘটনা বেদনাদায়ক উল্লেখ করে ইসি সচিব বলেন, নির্বাচনী সহিংসতায় মহেশখালী ও কুতুবদিয়ায় দুজনের প্রাণহানি হয়েছে, আরও কয়েক জায়গায় প্রার্থীদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষে আহত হয়েছেন অনেকে। এ ছাড়া আর সব জায়গায় নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে হয়েছে। অনিয়মের কারণে পাঁচটি ভোটকেন্দ্রে ভোট গ্রহণ বন্ধ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ইউপি নির্বাচনে ইভিএমে ৫০ শতাংশ এবং পৌরসভায় ৫৫ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছে। এছাড়া ব্যালটের মাধ্যমে যেসব জায়গায় ভোট পড়েছে, তাতে ভোট পড়ার হার ৬৫ শতাংশের বেশি।


আরও খবর



মসজিদ থেকে জঙ্গি সন্দেহে আটক ৪৫

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দিনাজপুরের সদর ও বিরলে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অভিযানে জঙ্গি সন্দেহে প্রায় ৪৫ জনকে আটক করা হয়েছে। কয়েকটি মসজিদে অভিযান চালানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজন সরকার। তবে নির্দিষ্ট কত জনকে আটক করা হয়েছে তা তিনি নিশ্চিত করতে পারেননি।

কথা হলে তিনি জানান, ঢাকা থেকে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা কয়েকটি মসজিদে অভিযান চালিয়েছেন। তারা আমাদের সহযোগিতা চেয়েছিল, এই হিসেবে তাদের সহায়তার জন্য দিনাজপুর থেকে পুলিশ সদস্যদের দেওয়া হয়েছিল।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত (১৭ সেপ্টেম্বর) ১২টার দিকে ঢাকার কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট দিনাজপুর সদর উপজেলার মহারাজা মোড়ের পূর্ব দিকে বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদে অভিযান চালায়। এ সময় সেখান থেকে ১২ জনকে আটক করা হয়। একইসময়ে বিরল উপজেলার বিরল বাজার জামে মসজিদে অভিযান চালিয়ে ১৭ জনকে আটক করে ইউনিটের সদস্যরা। এছাড়া উপজেলা আরও দুটি মসজিদ থেকে প্রায় ১৫ জনকে আটক করা হয়।

দুটি উপজেলার অভিযানেই স্থানীয় পুলিশ সদস্যরা সহযোগিতা করেন।

পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, তাবলিগ জামায়াতের একটি দল দিনাজপুর সদর ও বিরল উপজেলায় বিভক্ত হয়ে নাশকতার পরিকল্পনা করছে, এমন তথ্যের ভিত্তিতে রাতে দিনাজপুরে আসে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা। পরে তারা স্থানীয় পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে যৌথভাবে অভিযান পরিচালনা করে।

বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদের খাদেম আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বৃহস্পতিবার ২২ জন মানুষ ঢাকা থেকে আসেন। তাদের মধ্যে ১২ জন এখানে অবস্থান করে বাকিরা অন্য মসজিদে থাকার কথা বলে চলে যান। রাতে এশার নামাজের পরে আমরা বাসায় চলে গেলে তারা এই মসজিদেই অবস্থান করছিল। পরে রাতে শুনতে পারি তাদেরকে পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে।


আরও খবর



ঘুষ দাবি করায় স্যানিটারি ইন্সপেক্টরকে গণধোলাই

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পণ্যে ভেজাল আছে অভিযোগ তুলে হাটের ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ঘুষ দাবি করায় সিরাজগঞ্জের তাড়াশে স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও তার এক সহযোগীকে উত্তেজিত জনতা গণধোলাই দিয়ে আটকে রাখার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদেরকে জনতার কবল উদ্ধার করে।

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফজলে আশিক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার ধামাইচ গ্রামীণ হাটে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের সূত্রে জানা গেছে, তাড়াশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মরত স্যানিটারি ইন্সপেক্টর এস.এম. শহিদুল ইসলাম রন্টু ও হাসপাতালের নৈশ প্রহরী গোরাচাঁদ ধামাইচ হাটে গিয়ে ভেজাল পণ্যের অভিযোগ তুলে ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে মোটা অংকের ঘুষ দাবি করেন। ব্যবসায়ীরা ঘুষ দিতে অস্বীকার করলে তাদেরকে জেল জরিমানার ভয় দেখিয়ে খারাপ ব্যবহার করে। এ সময় উত্তেজিত জনতা তাদেরকে গণপিটুনি দিয়ে আটকে রাখে। এ ঘটনায় তার জামা ছেড়া অবস্থায় একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্যানিটারি ইন্সপেক্টর এস.এম. শহিদুল ইসলাম রন্টু ও নৈশ প্রহরী গোরাচাঁদকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।

ধামাইচ বাজারের হোটেল ব্যবসায়ী রাশিদুল ইসলাম বলেন, স্যানিটারি ইন্সপেক্টর এস.এম. শহিদুল ইসলাম রন্টু প্রায়ই হাট বাজারে গিয়ে ব্যবসায়ীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা ঘুষ নিয়ে থাকেন। গতকাল বিকেলে ধামাইচ হাটে এসে অনেক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে টাকা নেন। আমার দোকানে এসেও তিনি টাকা দাবি করেন।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য স্যানিটারি ইন্সপেক্টর এস.এম. শহিদুল ইসলাম রন্টুর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি এ বিষয়ে কোনও কথা বলতে রাজি হননি।

তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফজলে আশিক বলেন, খরব পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে ধামাইচ হাট থেকে স্যানিটারি ইন্সপেক্টর এস.এম. শহিদুল ইসলাম রন্টু ও নৈশ প্রহরী গোরাচাঁদকে উদ্ধার করা হয়। পরে রাত ৮টার সময় মুচলেকা দিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তাদেরকে তার জিম্মায় নিয়ে যান।


আরও খবর
সিরাজগঞ্জে তীব্র নদী ভাঙন অব্যাহত

রবিবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১